মুসলিম বলেই আমাকে এত হেনস্থা: জাকির নায়েক

%e0%a7%a6%e0%a7%a9এশিয়ানবার্তা: ইসলাম বিষয়ক টেলিভিশন অনুষ্ঠান করে পরিচিতি পাওয়া জাকির নায়েক তার বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগের জবাব দিয়েছেন।

তিনি বলেন, শুধুমাত্র মুসলিম বলেই এত হেনস্থা আমাকে। কই সাধ্বী প্রাচী বা যোগী আদিত্যনাথ–দের সঙ্গে তো এমন হয় না

বেআইনি কাজকর্মে যুক্ত থাকার অভিযোগে তার সংস্থা ‘ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন’–কে নিষিদ্ধ করেছে সরকার। সেই প্রসঙ্গে দেশবাসীর উদ্দেশে খোলা চিঠি লিখেছেন তিনি।

জাকির নায়েক বলেছেন, ‘অনেকে বলেন, আমি নাকি মুসলিম পরিচয় ভাঙিয়ে খাই! সে যাই হোক না কেন, সাম্প্রদায়িক কারণেই আমার সংস্থাকে নিষিদ্ধ করেছে সরকার। একবারও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হল না কেন? আসলে তদন্ত শুরু হওয়ার ঢের আগেই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়ে গিয়েছিল। আমি মুসলিম যে! সাধ্বী প্রাচী, যোগী আদিত্যনাথ, রাজেশ্বর সিং–রা তো প্রায়ই সাম্প্রদায়িক মন্তব্য করেন। কই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়না তো! নেবে কী করে! রাজনৈতিক স্বার্থ লুকিয়ে আছে যে! এই সিদ্ধান্তের মাধ্যমে শুধুমাত্র ভারতীয় মুসলিমদের ওপরই নয়, দেশের শান্তি, গণতন্ত্র এবং বিচারব্যবস্থার ওপর আঘাত হানা হয়েছে। তবে আমিও হার মানছি না। দরকার হলে আইনি পথে যাব।’

নোট বাতিলের ব্যর্থতা ঢাকতেও তার সংস্থাকে বদনাম করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন জাকির। তার দাবি, ‘নোট বাতিলের ব্যর্থতা থেকে সংবাদমাধ্যমের নজর ঘোরাতেই আই আর এফ–কে ব্যবহার করা হচ্ছে।

জুলাই মাসে ঢাকা হামলার পর থেকেই জাকির নাইকের ‘ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন’–এর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়। বিদেশি অনুদানের টাকা নয়ছয় এবং সন্ত্রাসবাদে প্ররোচনা দেয়ার অভিযোগে গত সপ্তাহে সংস্থাটিকে ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তদন্ত শুরুর ঢের আগেই দেশ ছেড়েছিলেন জাকির। ৩০ অক্টোবর বাবা আব্দুল কে নায়েকের মৃত্যুর খবর পেয়েও দেশে ফেরেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.