ঝিনাইদহে দলীয় কোন্দলে বিপাকে আওয়ামীলীগ

06ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দল চরম আকার ধারণ করেছে। এ কারণে সাংগঠনিক কর্মকান্ড এখানো শক্তিশালী হতে পারেনি। জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনেক আগে সম্পন্ন করা হলেও পাঁচটি উপজেলায় এখনো সম্মেলন করা হয়নি। এ কারণে উপজেলা আওয়ামী লীগ বিভিন্ন গ্রুপ-উপগ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়েছে।

শৈলকূপা উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন করা হলেও কোন্দল নিরসন হয়নি। বরং সরকারি সুযোগ-সুবিধা নিয়ে কোন্দল আরও বেড়েছে। অনেক নেতা-কর্মীকে একঘরে ও কোণঠাসা করে রাখা হয়েছে। সম্প্রতি এলজিইডির টেন্ডার ড্রপ নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা প্রবীণ আওয়ামী লীগে নেতা মোক্তার আহম্মেদ মৃধা ও তার ছেলে গোলাম মুরশিদ মৃধাকে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে দিয়েছেন শৈলকূপা আসনের এমপি গ্রুপের নেতা-কর্মীরা। এ নিয়ে শৈলকূপা আওয়ামী লীগের মধ্যে চলছে চরম উত্তেজনা।

হরিণাকুন্ডুতে একই অবস্থা। সেখানে মশিয়ার জোয়ার্দ্দার ও আফজাল হোসেন গ্রুপে আওয়ামী লীগ বিভক্ত।

ঝিনাইদহ-৩ (কোটচাঁদপুর-মহেশপুর) আসনেও দুটি গ্রুপ সক্রিয়। একটি গ্রুপের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বর্তমান এমপি নবী নেওয়াজ এবং অপর গ্রুপের সাবেক এমপি শফিকুল আজম খান চঞ্চল।

কালীগঞ্জ উপজেলায়ও ব্যাপক দ্বন্দ্ব আওয়ামীলীগে। এক গ্রুপের নেতৃত্ব দিচ্ছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমপি আনোয়ারুল আজীম আনার। অন্য গ্রুপের নেতৃত্বে আছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি আবদুল মান্নান। তাদের দুজনের মধ্যে দা-কুমড়া সম্পর্ক। এ কারণে এক নেতাকে প্রাণ দিতে হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.