1. [email protected] : AK Nannu : AK Nannu
  2. [email protected] : arifulweb :
  3. [email protected] : F Shahjahan : F Shahjahan
  4. [email protected] : Mahbubul Mannan : Mahbubul Mannan
  5. [email protected] : Arif Prodhan : Arif Prodhan
  6. [email protected] : Farjana Sraboni : Farjana Sraboni
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০১:৪০ পূর্বাহ্ন

আজকের সংবাদপত্রে বাংলাদেশের চালচিত্র

  • Update Time : সোমবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৭
  • ১৫ Time View

এশিয়ানবার্তা :ঢাকা, সোমবার ২০ নভেম্বর ২০১৭, ৬ অগ্রহায়ন ১৪২৪
আজকের দৈনিক পত্রিকাগুলো নিম্নলিখিত বিষয় প্রাধান্য দিয়ে খবর ছেপেছে:
# প্রতিবন্ধীদের সম্পদে পরিণত করতে এগিয়ে আসুন : রাষ্ট্রপতি
# রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাপান জার্মানি সুইডেন ইইউ পাশে থাকবে
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ক্সবঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের প্রতিশ্রুতি
# রোহিঙ্গাদের মানবিক কারণেই আশ্রয় দিয়েছে বাংলাদেশ : প্রধানমন্ত্রী
রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতা যুদ্ধাপরাধের শামিল : প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাতে মার্কিন সিনেটরবৃন্দ
# প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ক্সবঠকে বাংলাদেশের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করলেন প্রিন্সেস সোফি
# রোহিঙ্গা সমস্যা আন্তর্জাতিক ফোরামে তুলে ধরার আশ্বাস জাপান জার্মানি সুইডেন পররাষ্ট্রবিষয়কমন্ত্রীর
# ব্রাজিলে শুল্কমুক্ত বাজার সুবিধা চায় বাংলাদেশ : ‣বঠককালে বাণিজ্যমন্ত্রী
# দুর্যোগে টিকে থাকে এমন ধান উৎপাদনে জোর দিন : কৃষিমন্ত্রী
# সীমান্ত পয়েন্টে ভারতের ভিসা হোল্ডারদের জটিলতা নিরসনের আহ্বান বিমানমন্ত্রীর
#অক্টোবর পর্যন্ত বিদেশ গেছেন ৮ লাখ কর্মী : সংসদে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী
## টেকসই অবকাঠামো উনড়বয়ন এবং নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে এডিবির সঙ্গে ২১শ’ কোটি টাকার ঋণচুক্তি
# ঈদে মিলাদুনড়ববী (সা.) ২ ডিসেম্বর

##প্রতিবন্ধীদের সম্পদে পরিণত করতে এগিয়ে আসুন : রাষ্ট্রপতি

প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সম্পদে পরিণত করার কাজে এগিয়ে আসতে বিভিনড়ব সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, নীতি নির্ধারক ও উনড়বয়ন সহযোগীসহ সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু নভোথিয়েটারে পাঁচ দিনব্যাপী এশিয়ান ফেডারেশন অন ইন্টেলেকচুয়াল ডিজঅ্যাবিলিটির (এএফআইডি) ২৩তম সম্মেলন উদ্বোধনকালে তিনি এ আহ্বান জানান। রাষ্ট্রপতি বলেন, এ ব্যাপারে সামাজিক ও রাজ‣নতিক অঙ্গীকার অত্যাবশ্যক। বিশেষ শিক্ষা, প্রশিক্ষণ এবং স্বাস্থ্যসুবিধা প্রদান করলে তারাও সক্ষম জনশক্তিতে পরিণত হতে পারে। সূত্র প্রথম আলো (পৃ.২,ক.৭), সংবাদ (শেষ পৃ.,ক.১), নিউজ টুডে (পৃ.২,ক.১), ডেইলি সান (পৃ.২,ক.১)।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাপান জার্মানি সুইডেন ইইউ পাশে থাকবেপ্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ক্সবঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের প্রতিশ্রুতি
রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলে জানিয়েছে জাপান, জার্মান, সুইডেন ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ক্সবঠকে এসব দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা বাংলাদেশের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। রোহিঙ্গা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার) জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তারোকোনো, জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিগমার গ্যাব্রিয়েল, সুইডেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মারগট ওয়ালস্টার, ইউরোপীয় কমিশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ফেদেরিকো মোগেরিনি গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে পৃথক ক্সবঠক করেন। গতকাল জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ক্সবঠককালে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারের নাগরিক হিসেবে পুনরায় উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, মিয়ানমারকে তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নিতে হবে। দেশত্যাগে রোহিঙ্গাদের ¯্রােতের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কেবল মানবিক বিবেচনায় তাদের আশ্রয় দিয়েছে বাংলাদেশ। জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তারোকোনো বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে তার দেশের সহযোগিতার প্রস্তাব দিয়েছেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তার দেশ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে একটি চুক্তি চায়। সূত্র-জনকণ্ঠ (পৃ.১,ক.১), যুগান্তর (পৃ.১,ক.৮), নিউ নেশন (পৃ.১,ক.১), নিউজ টুডে (পৃ.১,ক.৬)।

## রোহিঙ্গাদের মানবিক কারণেই আশ্রয় দিয়েছে বাংলাদেশ : প্রধানমন্ত্রীরোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতা যুদ্ধাপরাধের শামিল : প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাতে মার্কিন সিনেটরবৃন্দ
সফররত যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটরগণ বলেছেন, রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নৃশংসতা যুদ্ধাপরাধের শামিল এবং মানবাধিকারের মে․লিক লঙ্ঘন। জেফ ম্যার্কলির নেতৃত্বে সিনেটরগণ গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার) প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে সাক্ষাৎকালে একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কফি আনান কমিশনের রিপোর্টের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। ১৯৭১ সালে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর হাতে নির্মম নিপীড়নের শিকার হয়ে জীবন বাঁচাতে বাংলাদেশের লাখ লাখ মানুষের ভারতে আশ্রয় নেওয়ার কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, মানবিক কারণে মায়ানমার সেনাবাহিনীর নৃশংসতার শিকার নাগরিকদের আশ্রয় দিয়েছে বাংলাদেশ। তিনি বলেন, মায়ানমার আমাদের কাছে প্রতিবেশী। আমরা চাই তারা তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নেবে। মার্কিন সিনেটররা বলেন, প্রত্যেক দেশের এই অপরাধ ও জাতিগত নিধনের নিন্দা জানানো উচিত। এই সংকটের সমাধান ও উদ্বাস্তুদের তাদের নিজ দেশে ফেরাতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আরও সোচ্চার হতে হবে। সুত্র-সংবাদ (পৃ.১,ক.৩), ইত্তেফাক (পৃ.১,ক.৫), ইন্ডিপেনডেন্ট (পৃ.১,ক.৩), নিউজ টুডে (পৃ.১,ক.৩)।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ক্সবঠকে বাংলাদেশের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করলেন প্রিন্সেস সোফি

যুক্তরাজ্যের প্রিন্সেস সোফি হেলেন রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন বন্ধে সংকট নিরসনে মিয়ানমারের ওপর জোরালো আন্তর্জাতিক চাপ প্রয়োগে ঢাকার আহ্বানে সহমত পোষণ করে বাংলাদেশের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছেন। গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার) প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে এক সে․জন্য সাক্ষাৎকালে কাউন্টিস অব ওয়েসেক্স প্রিন্সেস সোফি হেলেন এই সংহতি প্রকাশ করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, উদ্বাস্তÍুদের কষ্ট নিরসনে প্রশাসন, পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবীরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী উদ্বাস্তÍুদের জন্য ত্রাণসামগ্রী পাঠানোয় ব্রিটিশ সরকারকে ধন্যবাদ জানান। সূত্র-জনকণ্ঠ (পৃ.১,ক.১), ডেইলি সান (পৃ.৩,ক.৫), বাংলাদেশ টুডে (পৃ.১,ক.৭)।

## রোহিঙ্গা সমস্যা আন্তর্জাতিক ফোরামে তুলে ধরার আশ্বাস জাপান জার্মানি সুইডেন পররাষ্ট্রবিষয়কমন্ত্রীদের

রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে মিয়ানমারের ওপর চাপ ‣তরিসহ বিষয়টি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সামনে তুলে ধরার মাধ্যমে বাংলাদেশকে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে জাপান, জার্মানি, সুইডেন, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন। জাপান, জার্মানি ও সুইডেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীগণ এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের পররাষ্ট্রবিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার) আর মার্কিন সিনেট ও কংগ্রেসের একটি বিশেষ প্রতিনিধিদল গত শনিবার কক্সবাজারের উখিয়ায় দুটি রোহিঙ্গা শিবির সরেজমিন পরিদর্শনের পর তারা এ আশ্বাস দিয়েছেন। এ ছাড়া মিয়ানমারের রাজধানী নেপিডোতে আজ ২০ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া দুই দিনব্যাপী এশিয়া-ইউরোপ মিটিং বা আসেমে রোহিঙ্গা ইস্যুটি উত্থাপনের কথা বলেছেন আসেমের সদস্য দেশ জাপান, জার্মানি ও সুইডেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা। নির্যাতনের মুখে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের দুর্ভোগের পরিস্থিতি সরেজমিন পরিদর্শন করে তারা ভুক্তভোগী রোহিঙ্গাদের প্রতি সমবেদনা এবং রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে মানবিকতার পরিচয় দেয়ার জন্য বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানান তারা। সূত্র- ভোরের কাগজ, সংবাদ, সমকাল, ইত্তেফাক, ডেইলি স্টার, নিউ নেশন, ডেইলি সান এবিষয়ে লিড নিউজ ছেপেছে।

ব্রাজিলে শুল্কমুক্ত বাজার সুবিধা চায় বাংলাদেশ : ‣বঠককালে বাণিজ্যমন্ত্রী

ব্রাজিলে শুল্কমুক্ত বাজার প্রবেশ (ডিউটি ফ্রি কোটা ফ্রি মার্কেট এক্সেস) সুবিধা চায় বাংলাদেশ। গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার) সচিবালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত জুয়াও তাবাজারা ডি অলিভিরা জুনিয়রের সঙ্গে ক্সবঠকে এ প্রস্তাব দেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। ক্সবঠক শেষে মন্ত্রী এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, ব্রাজিলকে ফ্রি ট্রেড এগ্রিমেন্টের প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছে। এ চুক্তি হলে উভয় দেশ শুল্ক ও কোটামুক্ত পণ্য রপ্তানি করতে পারবে। সূত্র-জনকণ্ঠ (পৃ.১৮,ক.২), সংবাদ (পৃ.১৪,ক.২), অবজারভার বিজনেস (পৃ.১,ক.৫)।

দুর্যোগে টিকে থাকে এমন ধান উৎপাদনে জোর দিন : কৃষিমন্ত্রী

কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চে․ধুরী বলেছেন, বোরো মে․সুমে এক কোটি ৯৪ লাখ টন চাল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা গ্রহণ করেছে কৃষি মন্ত্রণালয়। এই উৎপাদন নিশ্চিত করতে প্রাকৃতিক দুর্যোগ, বন্যা, রোগ-বালাই ও পোকামাকড়ের আμমণের বিরুদ্ধে লড়াই করে টিকে থাকার মতো স্বল্পসময়ে পেকে যায় এমন ধানের জাত কৃষকের হাতে তুলে দিতে হবে। গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার) বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) অডিটোরিয়ামে ‘নির্বিঘেড়ব বোরো আবাদ : সতর্কতা ও করণীয়’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, আমাদের বিজ্ঞানীদের এমন জাত উদ্ভাবন করতে হবে, যা ব্রি-২৮ এর মতো জীবনকাল, কিন্তু ফলন দেবে ব্রি-২৯ এর মতো। তাহলে কৃষকরা বোরো উৎপাদনে উৎসাহিত হবেন। সূত্র-সমকাল (পৃ.৪,ক.৪), সংবাদ (শেষ পৃ.,ক.১), ডেইলি সান (পৃ.৩,ক.২)।

সীমান্ত পয়েন্টে ভারতের ভিসা হোল্ডারদের জটিলতা নিরসনের আহ্বান বিমানমন্ত্রীর

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপির সঙ্গে গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার) সচিবালয়ে সাক্ষাৎ করেন ভারতের হাইকমিশনার হর্ষবর্ধণ শ্রিংলা। এ সময় দ্বিপক্ষীয় নানা বিষয় নিয়ে আলাপ করেন তিনি। মন্ত্রী বিভিনড়ব সীমান্ত পয়েন্ট বিশেষ করে পেট্রাপোল সীমান্তে সিএন্ডএফ এজেন্ট ও মাল্টিপল ভিসা হোল্ডারদের ক্ষেত্রে সৃষ্ট জটিলতা দ্রুত সময়ে নিরসনে ভারতীয় হাইকমিশনারের প্রতি আহ্বান জানান। এ ছাড়াও ‣বঠকে ঢাকা-গে․হাটি-বাগডোগরা রুটে দ্রুত বিমান যোগাযোগ শুরুর ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়। সূত্র-সমকাল (পৃ.৫,ক.১), সংবাদ (শেষ পৃ.,ক.১), জনকণ্ঠ (শেষ পৃ.,ক.৭)।

অক্টোবর পর্যন্ত বিদেশ গেছেন ৮ লাখ কর্মী : সংসদে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী

প্রবাসী কল্যাণ ও ‣বদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেছেন, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে অক্টোবর পর্যন্ত বিশ্বের ১৬৫ দেশে ৮ লাখ ৩৪ হাজার ৭৭৩ জন কর্মী পাঠানো হয়েছে। গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার ) সংসদে এক প্রশেড়বর জবাবে এ তথ্য জানান মন্ত্রী । এসময় মন্ত্রী সংসদে অনুপস্থিত থাকায় তার পক্ষে প্রশেড়বর জবাব দেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। প্রবাসী কল্যাণ ও ‣বদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রীর তথ্য অনুযায়ী ২০১৫ সালে বিদেশগামী কর্মীর সংখ্যা ছিল ৫ লাখ ৫৫ হাজার ৮৮১ জন। ২০১৬ সালে তা বেড়ে ৭ লাখ ৫৭ হাজার ৭৩১ জনে উনড়বীত হয়। মন্ত্রী জানান, সরকারের গৃহীত নানামুখী কূট‣নতিক তৎপরতার ফলে
মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বের বিভিনড়ব দেশে বিদেশগামী কর্মীর সংখ্যা উত্তরোত্তর বাড়ছে। সূত্র-ভোরের কাগজ (পৃ.৩,ক.৬), জনকণ্ঠ (পৃ.২,ক.৩), প্রথম আলো (পৃ.২,ক.৬), ডেইলি সান (শেষ পৃ.,ক.৩), নিউ এজ (পৃ.২,ক.২)।

টেকসই অবকাঠামো উনড়বয়ন এবং নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে এডিবির সঙ্গে ২১শ’ কোটি টাকার ঋণচুক্তি

দেশের অবকাঠামো উনড়বয়নে প্রায় দুই হাজার একশ কোটি টাকা দিচ্ছে এশীয় উনড়বয়ন ব্যাংক (এডিবি)। টেকসই অবকাঠামো উনড়বয়ন বিশেষ করে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বের (পিপিপি) পাশাপাশি নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতে এ অর্থ ব্যয় হবে। গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে অর্থ‣নতিক সম্পর্ক বিভাগের সম্মেলনকক্ষে এডিবি ও বাংলাদেশ সরকারের মধ্যে এ ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এছাড়া একটি প্রকল্প চুক্তিও স্বাক্ষরিত হয় অনুষ্ঠানে। সূত্র-ইনকিলাব (পৃ.১,ক.২), ইত্তেফাক (পৃ.১৮,ক.৬), ফিনানশিয়াল এক্সপ্রেস (পৃ.১,ক.২), নিউ এজ (পৃ.২,ক.১)।

ঈদে মিলাদুনড়ববী (সা.) ২ ডিসেম্বর

বাংলাদেশের আকাশে গতকাল (১৯ নভেম্বর রোববার) রবিউল আউয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। এ জন্য ২১ নভেম্বর মঙ্গলবার থেকে রবিউল আউয়াল মাস গণনা শুরু হবে। আগামী ২ ডিসেম্বর (১২ রবিউল আউয়াল) শনিবার পালিত হবে পবিত্র ঈদে মিলাদুনড়ববী (সা.)। বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে গতকাল রোববার সন্ধ্যায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সূত্র-সংবাদ (পৃ.১,ক.৮), ইত্তেফাক (পৃ.১,ক.১), ইন্ডিপেনডেন্ট (শেষ পৃ.,ক.১), ডেইলি সান (শেষ পৃ.,ক.৮)।

সম্পাদনায়: এফ শাহজাহান, আব্দুল খালেক নান্নু, ফারজানা শ্রাবনী।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2016-2020 asianbarta24.com

Developed By Pigeon Soft