1. [email protected] : AK Nannu : AK Nannu
  2. [email protected] : arifulweb :
  3. [email protected] : F Shahjahan : F Shahjahan
  4. [email protected] : Mahbubul Mannan : Mahbubul Mannan
  5. [email protected] : Arif Prodhan : Arif Prodhan
  6. [email protected] : Farjana Sraboni : Farjana Sraboni
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৪০ অপরাহ্ন

দেশে হত্যার মহোৎসব শুরু হয়েছে: খালেদা

  • Update Time : সোমবার, ২ জানুয়ারী, ২০১৭
  • ২৫ Time View

01এশিয়ানবার্তা: বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, ‍“এ সরকারের আমলে দেশে হত্যা ও গুমের মহোৎসব শুরু হয়েছে। আর চলছে বিএনপি ও ছাত্রদল নেতা-কর্মীদের ওপর অমানবিক নির্যাতন।”

রোববার জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৩৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় খালেদা জিয়া এ কথা বলেন।
রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে এ সভার আয়োজন করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেছেন ছাত্রদলের সভাপতি রাজিব আহসান।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেন, ‍“ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতেই নতুন নতুন আইন করছে আওয়ামী লীগ সরকার। দেশে যত সন্ত্রাস ও হত্যাকাণ্ড হচ্ছে সবগুলোতে আওয়ামী লীগের লোকজনই জড়িত।”

খালেদা জিয়া অভিযোগ করেন, “মানহীন শিক্ষা দিয়ে নতুন প্রজন্মকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। পরীক্ষা নিয়ে নানা রকমের কারসাজি হয়।”

“এই দেশকে হাসিনা (প্রধানমন্ত্রী) ধ্বংস করতে চায়। দেশের যুব সমাজকে ধ্বংস করতে চায়। তারা ক্ষমতার মসনদ পাকা করার জন্য প্রতিনিয়ত নতুন নতুন আইন পাস করতে চায়। কোথায় আইন পাস করেন? কার জন্য আইন পাস করেন? যারা ভোটে নির্বাচিতই হয়নি। যে সংসদে কোন বিরোধী দলই নেয়।” -বলেন ২০ দলীয় প্রধান।

খালেদা জিয়া বলেন,  “আমরা চাই, একটা সহায়ক সরকার হবে। যেটি নির্বাচন কমিশনকে সব ধরনের সহায়তা করবে। রাষ্ট্রপতির কাছে প্রস্তাবটি ভালো লেগেছে। তিনি বলেছেন, আপনাদের প্রস্তাবটা সুন্দর।”

জোর করে বেশিদিন ক্ষমতায় টিকে থাকা যায় না উল্লেখ করে খালেদা জিয়া বলেন, “সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য শুধু নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষ হলেই চলবে না, প্রয়োজন নির্বাচনকালীন একটি নিরপেক্ষ সহায়ক সরকার।”

নতুন বছরে হত্যা বন্ধ করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান খালেদা জিয়া।

নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে সরকার অস্ত্র কিনছে বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

সভায় বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, শামসুজ্জামান দুদু, এজেডএম জাহিদ হোসেন, আমান উল্লাহ আমান, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, নাজিম উদ্দিন আলম, ছাত্র নেতা আকরামুল হাসান, নাজমুল হাসান, আবদুস সাত্তার পাটোয়ারী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে রোববার বিকেল সোয়া ৪টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৩৮ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় উপস্থিত হন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

ছাত্রদল আয়োজিত এ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে খালেদা জিয়া শান্তির প্রতীক কবুতর ও বেলুন উড়িয়ে সমাবেশের উদ্বোধন করেন।

এরপর দলীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্যে দিয়ে জাতীয় ও সংগঠনের দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন তিনি।

এদিকে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বড় ধরনে শোডাউন করেছে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা। ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের ভিতরে ও বাইরে বিপুল সংখ্যক ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা জিয়া, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নামে স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত করে তুলেন।

এ সময় তারা খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে জিয়া, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের ছবি, ফেসস্টুন ও ব্যানার বহন করে সরকার বিরোধী নানা স্লোগান দেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2016-2020 asianbarta24.com

Developed By Pigeon Soft