গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ওয়ার্কার্স পার্টির বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ

01গাইবান্ধা থেকে আরিফ উদ্দিন: গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের সাহেবগঞ্জ ইক্ষু খামারে আদিবাসীদের উচ্ছেদ, লুটপাট, হত্যা এবং নাসিরনগরে ষড়যন্ত্র মূলকভাবে মিথ্যা অজুহাতে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী হিন্দুদের ১৫টি মন্দির ভাংচুর, বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ, লুটপাটের প্রতিবাদে রোববার গাইবান্ধায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের কর্মসূচী পালন করে। ওয়ার্কার্স পার্টি গাইবান্ধা জেলা শাখা এই কর্মসূচীর আয়োজন করে।

 

বিক্ষোভ মিছিল শেষে শহরের ১নং রেলগেটে অধ্যক্ষ মমতাজুর রহমান বাবুর সভাপতিত্বে  বক্তব্য রাখেন ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য আমিনুল ইসলাম গোলাপ, জেলা সম্পাদক রেবতী বর্মণ, মোসাদ্দেক আহমেদ বুলবুল, বীরেন সরকার মিন্টু, প্রণব চৌধুরী, দেলোয়ার হোসেন, আলমগীর হোসেন প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, নাসিরনগর আজ এক সাম্প্রদায়িক জনপদে পরিণত হয়েছে। রামু থেকে নাসিরনগর পর্যন্ত বিস্তৃতি লাভ করেছে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর সহিংসতা এক বিভৎস ধ্বংসযজ্ঞ। নাসিরনগরে প্রশাসন ধর্মীয় গোষ্ঠীকে সমাবেশ করার অনুমতি দিয়ে ও সমাবেশে আওয়ামী লীগ, বিএনপি নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখায় মন্দির ভাংচুর, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ ত্বরান্বিত হয়। দলমত নির্বিশেষে সকল অপরাধীর দ্রুত আইনে বিচার না হলে রামু নাসিরনগরে বারবার হামলা সন্ত্রাস ফিরে আসবে।

বক্তারা আরও বলেন, বাংলাদেশে আদিবাসীরাই সবচেয়ে দরিদ্র এবং সামাজিক ও রাষ্ট্রীয়ভাবে নিপীড়িত, নির্যাতিত, অবহেলিত। গোবিন্দগঞ্জের সাহেবগঞ্জ ইক্ষু খামার থেকে আদিবাসীদের উচ্ছেদের জন্য গুলি করার প্রয়োজন ছিল না। বক্তারা বাস্তুহারা আদিবাসীদের পুনর্বাসন, হত্যা, লুটপাটের বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.