গোবিন্দগঞ্জের সাহেবগঞ্জ ইক্ষু খামারের ঘটনায় এক আদিবাসী নিহত, নিখোঁজ দুই: খামার এখন আইন শৃংখলা বাহিনী ও চিনিকল কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণে

01গাইবান্ধা থেকে ফারুক হোসেন:  গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের সাহেবগঞ্জ ইক্ষু খামারের অবৈধ দখলদার মুক্ত হওয়ার পর শৃংখলা বাহিনী ও চিনিকল কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে খামার।  সোমবার সেখানে চিনিকল কর্তৃপক্ষ স্বাভাবিক কর্মকান্ড পরিচালনা করে।  তবে শ্যামল কিস্কু নামের ১জনের মৃত্যুর খবর  পাওয়া গেলেও গোবিন্দগঞ্জ থানায় কোন তথ্য না থাকায় এখন পর্যন্ত এ  মৃত্যুর খবর নিয়ে অনেকটা ধোয়াসা দেখা দিয়েছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সুত্রে জানা গেছে প্রায় ৪/৫ মাস যাবত নিজেদের বাপ-দাদার সম্পত্তি দাবী করে এলাকার কিছু ব্যক্তি রংপুর চিনিকলের আওতাধীন এই খামারের আবাদী জমিতে ছোট ছোট কুড়ে ঘর নির্মাণ করে দখলের চেষ্টা চালায়। ইতোমধ্যে তারা সেখানে ধান ও মাসকালাই চাষ শুরু করে। এই অবেধদখলদাররা তাদের দখলদারিত্ব স্থাপনের লক্ষ্যে চিনিকলের স্বাভাবিক কর্মকান্ডে বাধা সৃষ্টি করে। তাদের হামলার শিকার হয়ে বেশ কয়েক দফায় পুলিশ ও শ্রমিক কর্মচারী আহত হয়।

এদের ভয়ে খামারের পাহাড়াদাররা তাদের কর্তব্য পালন করতে না পারায় বেশ কিছু জমির ধইঞ্চা ও আখ ক্ষেত বিনষ্ট ও ফসল তছরুপ হয়।

রোববার চিনিকল কর্তৃপক্ষ শ্রমিক-কর্মচারী নিয়ে পুলিশ পাহারায়  খামারের  আখ কাটতে গেলে অবৈধদখলদাররা তাতে বাঁধা দেয়। এতে উভয়পক্ষের সংঘর্ষে তীর বিদ্ধ হয়ে ৯ পুলিশ সহ ৩০ জন আহত হয়। পরে র‌্যাব ও পুলিশ খামারে পৌঁছে খামারে অবেধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে। সোমবার  খামার সংলগ্ন মাদারপুর ও জয়পুর পাড়ায় বসবাসরত আদীবাসী পরিবারকে হুমকী ধামকী  ভয়ভীতি ও তাদের সম্পদ লুটের অভিযোগ করে।

এ ব্যাপারে ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাকিল আলম বুলবুল আদীবাসিদের  ভয় নাকরার পরামর্শ দেন এবং তাদের হয়রানি  না করতে মাইকিং করেন।

সোমবার দুপুরে পুলিশের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ ও গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক আব্দুস সামাদ  সাহেবগঞ্জ ইক্ষু খামার পরিদর্শন করেন।
এদিকে দিনাজপুর মেডিকেলে আহত শ্যামল কিস্কু নামের একজন মারা যাওয়ার ব্যাপারে জানতে চাইলে গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ  সুব্রত কুমার সরকার, জানান এব্যাপারে তার কাছে কোন তথ্য আসেনি।

এধরণের গুজব কানে আসার পর তিনি বিভিন্ন ভাবে ঘটনার সত্যতা যাচায়ের চেষ্টা করেও মারা যাওয়ার ব্যাপারে কোন তথ্য পাননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.