রাণীশংকৈলে একদিনের ব্যবধানে প্রতিকেজি পেঁয়াজ ৫০ থেকে ৮০ টাকা, বিপাকে ক্রেতারা

হুমায়ুন কবির, রাণীশংকৈল, (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃ  ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় ১ দিনের ব্যবধানে
প্রতিকেজি পেঁয়াজ ৫০ টাকা থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
গত ১৪ সেপ্টেম্বর সোমবার উপজেলার প্রতিটি বাজারে বিক্রি হয়েছে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৫০ টাকা। অথচ ১৫
সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার ১ দিনের ব্যবধানে তা বেড়ে এখন ৮০ টাকা। উপজেলার পাটগাঁও গ্রামের বিপ্লব আহম্মেদ বলেন
আজ সকালে ৮০ টাকায় ১ কেজি পেঁয়াজ কিনেছি। 
পৌরশহরের চাঁদনী এলাকার সফিকুল বলেন, গত ১৩ সেপ্টেম্বর রবিবার নেকমরদ হাট থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে ৫ কেজি
পেঁয়াজ কিনেছি আজ শুনতেছি ৮০ টাকা কেজি। পৌরশহরসহ উপজেলার সকল স্থানের ছোট বড় বাজার গুলোতে গত এক
সপ্তাহের ব্যবধানে সব ধরনের পেঁয়াজের দাম হুড়হুর করে বেড়ে যাচ্ছে। এতে বেশ চিন্তিত ও দিশেহারা হয়ে পড়েছেন
সাধারণ ক্রেতারা।
গত ১০- ১২ সেপ্টেম্বর  রাণীশংকৈল উপজেলার কাতিহার , নেকমরদ হাট, শিবদিঘী পৌর বাজার,এবং বলিদ্বারা বাজার ঘুরে
দেখা গেছে, প্রতি কেজি পেঁয়াজ খুচরা ৪০ থেকে ৫০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। এক-দুদিনের ব্যবধানে কেজি
প্রতি ৩০/৪০ টাকা বেড়ে যাওয়ায় চরম ক্ষোভ  প্রকাশ করেছেন ক্রেতারা।
কাতিহার ও নেকমরদ হাটের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দ্#ু৩৯;জন দৈনিক বাজার ব্যবসায়ী জানান, একটি সিন্ডিকেট চক্রের
কারণে পেঁয়াজের বাজারের এ অবস্থা। মাত্র এক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৩৫- ৪০ টাকা বেড়ে এখন ৭৫-
৮০ টাকা বিক্রি হচ্ছে । গত বছরের শেষের দিকে সিন্ডিকেটের কবলে পড়েছিলো পেঁয়াজের বাজার। এবারও বছরের শেষে
এসে আবারো পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি শুরু হয়েছে। তবে সরকার সঠিক ভাবে বাজার মনিটরিং করলে স্থিতিশীল অবস্থা
সৃষ্টি হতে পারে। 
এদিকে ১৫ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সহকারি কমিশনার (ভূমি) প্রীতম সাহা উপজেলার বিভিন্ন পেঁয়াজের বাজার  ভ্রাম্যমাণ
আদালতের মাধ্যমে মনিটরিং করেন। তিনি বলেন, দেশে প্রযাপ্ত পেঁয়াজ মজুদ রয়েছে তাই পাইকারী ও খুচরা
বিক্রেতাদেরকে রশিদ সহ পেঁয়াজ কিনতে বলেছি এবং সাধারণ ক্রেতাদের মাঝে নুন্যতম লাভে বিক্রির পরামর্শ
দিয়েছি। তিনি আরো বলেন, প্রত্যেকটি নিত্য প্রয়োজনী দোকানে বাজার মূল্য তালিকা টাংগানো বাধ্যতামূলক 
এবং কেউ পেঁয়াজ কিনে মজুদ করে কৃত্তিম সংকট সৃষ্টি করলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবসস্থা গ্রহণ করা হবে।  
কেন হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে অনেক ব্যবসায়ী  জানান, আমদানিকারকরা বলছেন
ভারতে নাকি বন্যা হয়েছে। এমন অযুহাতে পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। যার প্রভাব পড়ছে খুচরা
বাজারে।
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর, ঠাকুরগাঁও সহকারি পরিচালক শেখ শাদি  বলেন,
ঠাকুরগাঁও সদরে মূল পেঁয়াজের আরদদারদের সিন্ডিকেটের কারণে হঠাৎ পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। আমরা ভ্রাম্যমাণ
আদালতের মাধ্যমে বাজার নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা চালাছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.