ফেইসবুক লাইভে বিভ্রান্তিকর তথ্য মেয়র রোকনের বিরুদ্ধে মামলা


শহিদুল ইসলাম নিরব, সরিষাবাড়ী(জামালপুর) প্রতিনিধি :জামালপুর সরিষাবাড়ীর উপজেলার পৌর মেয়র রোকনুজ্জামান রোকন গতকাল মঙ্গলবার রাতে ফেইসবুক লাইভে মিথ্যা বানোয়াট ও বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য দেওয়ায় থানায় মামলা করেছেন উপজেলা যুবলীগের সদস্য ছামিউল হক নামের এক ব্যক্তি।
জানা যায় সরিষাবাড়ী উপজেলার পৌর মেয়র রোকনুজ্জামান রোকন মঙ্গলবার রাতে ফেইসবুক লাইভে ২০ মিনিট ৩১ সেকেন্ডেরর একটি বক্তব্য রাখেন। বক্তব্যের এক পর্যায় বর্তমান তথ্যপ্রতিমন্ত্রী ডাক্তার মুরাদ হাসানসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে বেশ কিছু মিথ্যে বানোয়াট তথ্য তুলে ধরেন। এই নিয়ে এলাকায় চলছে প্রতিবাদের ঝড় ও তীব্র ক্ষোভ।

এর আগেও একবার কয়েক মাস পূর্বে সে ফেইসবুক লাইভে তথ্যপ্রতিমন্ত্রী ডাক্তার মুরাদ হাসানের নামে সম্মানহানীমূলক বক্তব্য রাখে বলে জানা যায়। যার ফলে তাকে দলের শৃঙ্খলা ভঙের কারণে পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়। দুর্নীতির কারণে পৌর কাউন্সিরগণ তাকে অনাস্থা দেয় ও অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে।
মামলার বাদি যুবলীগ নেতা মো. ছামিউল হক জানান, মেয়র রোকন উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে নিয়ে ধারাবাহিক আপত্তিকর মন্তব্য করে যাচ্ছেন। এতে সামাজিকভাবে প্রতিমন্ত্রী হেয়প্রতিপন্ন হওয়ায় মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সরিষাবাড়ী থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২৫ (১), ২৫ (৩), ২৯ (২) ও ৩১ (১) ধারায় রোকনের বিরুদ্ধে মামলা (নম্বর ৩, তারিখ ০৫-০৮-২০২০খ্রি.) দায়ের করা হয়। মেয়র রোকনকে দ্রুত গ্রেফতার করার দাবি জানান বাদি।

আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতারা বলেন, মেয়র রোকনুজ্জামান রোকন একজন রাজাকরের নাতী হওয়া সত্ত্বেও অজানা কারণে আওয়ামী লীগের সদস্যপদ লাভ করে এবং দলে প্রবেশের কয়েক মাস পরেই মেয়রের নমিনেশন পান। স্থানীয় আওয়ামী লীগের সহযোগিতায় মেয়র হন। মেয়র পদে নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই সে নানা কারণেই সমালোচিত হয়েছে। নারী কেলেঙ্কারি, পৌরসভার দুর্নীতি, অপহরণের নাটকসহ জন্ম দিয়েছেন নানা অপ্রত্যাশিত ও অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা।
সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সানোয়ার হোসেন বাদশা বলেন, রোকনুজ্জামান রোকন ফেইসবুক লাইভে যে সব মিথ্যা বানোয়াট তথ্য তুলে ধরেছে তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই এবং দ্রুত সময়ের মধ্যে আইন অনুযায়ী বিচারের দাবি জানাচ্ছি।
এ বিষয়ে সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ আবু মো. ফজলুল করিম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি আইন অনুযায়ী দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.