বাসের নিচে প্রাইভেটকার : দুই পরিবারের ৮ জন নিহত

ফকীর শাহ < এশিয়ানবার্তা ডেস্ক > ভয়ংকর সড়ক মহামারি কবলিত বাংলাদেশে আজ সকাল থেকে এখন পর্যন্ত বাস চাপায় দুই পরিবারের ৮ জন নিহত হয়েছেন। সিলেট ও গোপালগঞ্জে এই মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে।

সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলায় বাসচাপায় প্রাইভেটকারে থাকা স্বামী-স্ত্রী ও দুই সন্তানসহ পাঁচজন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছে তাদের আরেক সন্তান। শুক্রবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে উপজেলার বরাইয়া চাঁনপুর এলাকায় সিলেটে-ঢাকা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। অপর দিকে গোপালগঞ্জে প্রাইভেটকার দুর্ঘটনায় সিঙ্গাপুর প্রবাসীসহ তার পরিবারের ৩ সদস্য নিহত হয়েছে। ভোর ৪ টার দিকে কাশিয়ানী উপজেলার ভাটিয়াপাড়া ফ্লাইওভারে এ সড়ক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।

সিলেটে নিহতরা হলেন মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার সাতগাঁও ইউনিয়নের লইয়াকুল গ্রামের স্বপন কুমার দাস, তার স্ত্রী লাভলী রানী দাস, তাদের দুই সন্তান ও প্রাইভেটকারের চালক।

তাদের আরেক সন্তানকে গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জে নিহতরা হলেন, সিঙ্গাপুর প্রবাসী খুলনা জেলার দীঘলিয়া উপজেলার মোল্লাডাঙ্গা গ্রামের ইমদাদুল (২৫), তার পিতা মোঃ জিয়ারুল (৫৫) ও দুলাভাই সাজ্জাদ মোল্লা (৩৫)। সাজ্জাদের বাড়ি নড়াইল জেলার সিলনপুর গ্রামে।

সিলেট তামাবিল হাইওয়ে পুলিশের পরিদর্শক মাইনুল ইসলাম বলেন, সকালে বরাইয়া চানপুর এলাকায় সিলেটগামী একটি প্রাইভেটকারকে বিপরীত দিক থেকে আসা মিতালী নামের একটি বাস চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাইভেটকারে থাকা একই পরিবারের চারজনসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। উদ্ধার কাজে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরাও অংশ নেন।

ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল বণিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মৃত সবাই একই পরিবারের সদস্য। তবে তাদের নাম ঠিকানা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.