৩ বছর ধরে সোনার হরফে কোরআন লিখলেন এক মহিলা

06এশিয়ানবার্তা: পৃথিবীর সবচেয়ে পুরনো কুরান নাকি লেখা হয়েছিল ভেড়ার চামড়ার উপর। ২০১৫ সালে সেই কুরানের পাণ্ডুলিপির খোঁজ মেলে বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মালখানায়। ‘প্রথম কোরআন’-এর খোঁজ মেলায় হইচই পড়ে গিয়েছিল সে সময়। এ বার আরও একবার খবরের শিরোনামে কোরআন।কোরআনকে ‘নতুন’ ভাবে লিখে ফেলে ইতিহাস গড়ে ফেললেন আজারবাইজানের শিল্পী তুনজালে মেমেদজাদে। ১৬৪ ফুটের স্বচ্ছ কালো সিল্কের উপর সোনা এবং রুপো দিয়ে কোরআন লিখেছেন তিনি। সময় লেগেছে প্রায় ৩ বছর।

সিল্কের উপর সোনার হরফে কোরআন এই প্রথম লেখা হল বলে জানান ৩৩ বছরের এই শিল্পী। ১১.৪ ফুট বাই ১৩ ফুট সাইজের এই কোরআন হরফ লেখা হয়েছে সোনা এবং রুপো দিয়ে। প্রত্যেকটি হরফ নিজের হাতে লিখেছেন মেমেদজাদে। কোরআনের প্রতিটি পাতায় ফুটে উঠেছে উত্কর্ষ ইসলামীয় শিল্পকলা। তুরস্কের প্রেসিডেন্সি অব রিলিজিয়াস অ্যাফেয়ারস, দিয়ানেট থেকে প্রকাশ পেয়েছে কোরআনের প্রথম সংস্করণ।

মেমেদজাদে জানান, ‘সিল্ক দিয়ে তৈরি কোরান কোনও ধর্মীয় আঘাত আনেনি। কোরআনেই সিল্কের কথা উল্লেখ রয়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.