1. [email protected] : AK Nannu : AK Nannu
  2. [email protected] : arifulweb :
  3. [email protected] : F Shahjahan : F Shahjahan
  4. [email protected] : Mahbubul Mannan : Mahbubul Mannan
  5. [email protected] : Arif Prodhan : Arif Prodhan
  6. [email protected] : Farjana Sraboni : Farjana Sraboni
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩০ অপরাহ্ন

ডার্কওয়েবে সংগঠিত হচ্ছে জেএমবি: বেঙ্গল উলায়েত নামে ভারত ও বাংলাদেশে নতুন মিশন

  • Update Time : মঙ্গলবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৭ Time View

ফকীর শাহ : ইন্টারনেটের অন্ধকার জগত ‘ডার্কওয়েব’ ব্যাবহার করে সংগঠিত হচ্ছে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবি (জাগ্রত মুসলিম জনতা) । সংগঠনেরনাম পরিবর্তন করে নতুন নাম রাখা হয়েছে‘বেঙ্গল উলায়েত’। এই নামেই  এবার তারা একসঙ্গে ভারত এবং বাংলাদেশকে টার্গেট করে নতুন মিশনের ছক কষছে। অনলাইন রহস্যপুরী ডার্কওয়েবে আপাতত বেশ নিরাপদে চলছে তাদের কর্মী সংগ্রহ,প্রশিক্ষণ প্রদানসহ সব ধরনের সাংগঠনিক তৎপরতা ।

দীর্ঘদিন ধরে নিষ্ক্রিয়  থাকা এই সংগঠনের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারক কমিটি ‘মজলিশ-ই-শুরা’-র বৈঠকও ডাকা হয়েছে।আসামের বরপেটা বা ধুবড়ির একটি গোপন আস্তানায়  সেই বৈঠক বসতে পারে বলে আভাস পাওয়া গেছে।

বাংলাদেশের ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশি ভারতের  গোয়েন্দা সংস্থা সম্প্রতি জেএমবির সংঠিত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছে।গত আগস্ট মাসের শেষে দু’পারের জঙ্গিদের মধ্যে হওয়া কথোপকথন ‘ডিকোড’ করে এই তথ্য পেয়েছে ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা।

গোয়েন্দা সুত্র বলছে, জঙ্গিদের কথোপকথনে ভারতে পশ্চিমবঙ্গের ‘অনুরাগী’দের পাশাপাশি বাংলাদেশের কয়েকজন শীর্ষ জঙ্গিকে আমন্ত্রণ জানানোর বার্তা ছিল ওই কথোপকথনে।

নতুন কৌশল হিসেবে জেএমবির জঙ্গিরা অন্য নামে একটি সংগঠন গড়ার কাজও শুরু করেছে বলেও ইঙ্গিত পেয়েছেন গোয়েন্দারা।

ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্রে দাবি, সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে চলছিল ওই কথোপকথন। তা ডিকোড করে জানা গিয়েছে, জেএমবি-র সঙ্গে যুক্ত ভারতের  জাকির নামের একজন কথা বলছিল বাংলাদেশের এক আমিরের সঙ্গে।

শুধু জাকিরই নয়,  মালদহ, মুর্শিদাবাদ, উত্তর ২৪ পরগনা ও মুর্শিদাবাদের কমপক্ষে ১০ জন ‘জেএমবি ঘনিষ্ঠ’ নিয়মিত ‘ডার্ক ওয়েব’ মাধ্যমে ওপারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে।

জেএমবির গোপন তৎরতার খবর জানতে পেরে আসামের পুলিশ প্রশাসনও সক্রিয় হয়েছে।আসামের আরেক সংগঠন ‘মুসলিম ইউনাইটেড লিবারেশন আর্মি’র (মুলটা) সদস্যরা সরাসরি জেএমবি-র খাতায় নাম লিখিয়েছে।গত জুলাই মাসে আসামের ধুবড়ি থেকে তাদের দুই জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ।

ভারতীয় গোয়েন্দারা বলছেন, জঙ্গিদের কথোপকথন ডিকোড করে ‘শুরা’, ‘আসাম’, ‘বেঙ্গল’, ‘এসার’ এবং ‘উলায়েত’-এর মতো কিছু শব্দ পাওয়া গেছে।

শুরা বলতে জেএমবির সর্বোচ্চ কমিটি ‘মজলিশ ই শুরা’ বুঝে নিয়েছেন গোয়েন্দারা। আর তার সম্ভাব্য বৈঠকস্থল হিসেবে নাম এসেছে আসামের । ‘এসার’ শব্দটির অর্থ নিচু স্তরের কর্মী ।এসব শব্দ সংকেত ডিকোড করে গোয়েন্দারা নিশ্চিত হয়েছেন যে নতুন নামে নতুন ভাবে পুরাতন জেএমবি ভারত ও বাংলাদেশে একসঙ্গে তৎপরতা চালাচ্ছে।

আইএস আদর্শে বিশ্বাসী জেএমবি এই উপমহাদেশের বাংলাভাষী ক্যাডারদের জন্য একটি নতুন নামে যে সংগঠন তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে, তার নাম দেওয়া হয়েছে ‘বেঙ্গল উলায়েত’।

এখন থেকে এই নামেই ভারত ও বাংলাদেশে তাদের মিশন চালাবে ।এই মুহূর্তে জেএমবি-র  মজলিশ-ই-শুরায় যে ক’জন রয়েছে, তাদের প্রত্যেকের সাংগঠনিক নামের শেষে রয়েছে এই শব্দটি।

তারা হলেন

১.আুব আমের আল বাঙ্গালি,

২.আবু রুহাম আল বাঙ্গালি,

৩.আবু আদনান আল বাঙ্গালি,

৪.আবু দুজানা আল বাঙ্গালি এবং

৫.আবু আহেসান আল বাঙ্গালি।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2016-2020 asianbarta24.com

Developed By Pigeon Soft