ধামইরহাটে প্রচন্ড শৈত্যপ্রবাহ ও ঘন কুয়াশায় বোরো বীজতলা নষ্ট হওয়ার উপক্রম


ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃনওগাঁর ধামইরহাটের প্রায় ২ সপ্তাহ ধরে প্রচন্ড শৈত্যপ্রবাহ ও ঘন কুয়াশা বয়ে চলছে। দির্ঘদিন ধরে কুয়াশার কারণে কৃষকের বোরো বীজতলা নষ্ট হওয়ার উপক্রম হয়েছে। ফলে বীজের অভাবে বোরো ধান উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ব্যাহত হওয়ার আশংকা করছেন ভুক্তভোগি কৃষকগণ।

জানা গেছে,দেশের উত্তরাঞ্চলে বিশেষ করে বরেন্দ্র অঞ্চল হিসেবে খ্যাত নওগাঁ জেলার সর্বত্র প্রায় ২ সপ্তাহ ধরে প্রচন্ড শৈত্যপ্রবাহ ও ঘন কুয়াশা বয়ে চলছে। মধ্যরাত থেকে পরদিন দুপুর কোন কোন দিন পুরো দিনই সূর্যের মুখ দেখা যায় না। প্রচন্ড শীতের সাথে ঘন কুয়াশার কারণে মানুষের স্বাভাবিক জীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। সবচেয়ে বেশি বেকায়দায় পড়েছে খেটে খাওয়া শ্রমজীবি মানুষ। অনেকে গরম কাপড়ের অভাবে ঘর থেকে বের হতে পারছেনা। এদিকে আর কয়েক দিন পর শুরু হবে ইরি বোরো ধান রোপন কর্মসূচী। কিন্তু আকস্মিক শৈত্যপ্রবাহ ও ঘন কুয়াশার কারণে অনেক কৃষকের বোরো বীজতলা নষ্ট হওয়ার উপক্রম হয়েছে। উপজেলার উমার ইউনিয়নের অন্তর্গত ছাইতানকুড়ি গ্রামের কৃষক মো.আব্দুল হান্নান বলেন,তিনি প্রায় ৭৫ শতাংশ জমিতে বোরো ধান রোপনের জন্য বীজতলা তৈরি করেন।

কিন্তু ঘন কুয়াশার কারণে ফার্শিপাড়া মোড় থেকে বীরগ্রাম যাওয়ার রাস্তার পার্শে তার বোরো বীজতলা নষ্ট হয়ে গেছে। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে,এবার এ উপজেলায় প্রায় ১৬ হাজার ৯০ হেক্টর জমিতে ইরি বোরো ধান রোপনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রায় ৮শত ২০ হেক্টর জমিতে বোরো বীজতলা তৈরি করা হয়েছে। এব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো.সেলিম রেজা বলেন,দির্ঘদিন ধরে এ অঞ্চলের উপর দিয়ে প্রচন্ড শৈত্যপ্রবাহ ও ঘন কুয়াশা প্রবাহিত হওয়ার কারণে অনেক বীজতলার সামান্য কিছু ক্ষতি হয়েছে। তবে কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে এ সমস্যা থেকে উত্তরণের জন্য কৃষকদেরকে সচেতন করার লক্ষে প্রায় ১০ হাজার লিফলেট বিতরণ কর্মসূচী চলছে। বীজতলা রক্ষার জন্য রাতে পলেথিন দিয়ে ঢেকে এবং সকালে খুলে দেয়া,সন্ধ্যায় বীজতলা ভতি করে পানি সেচ প্রদান এবং সকালে পানি বের করে দেয়া,সকালে চারার উপর দড়ি দিয়ে টেনে দিতে হবে যাতে পাতায় শিশির না থাকতে পারে। এছাড়া আর কিছু বিষয়ে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ গ্রামে গ্রামে গিয়ে কৃষকদের বোরো বীজতলা রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.