মণিরামপুরে চোর সন্দেহে যুবককে পিটিয়ে হত্যা

02কেশবপুর (যশোর) থেকে মেহেদী হাসান: যশোরের মণিরামপুরে চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে রবিউল ইসলাম (৩৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার মাহমুদকাটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রবিউল ইসলাম উপজেলার বালিদা পাঁচাকড়ি গ্রামের লিয়াকত সরদারের ছেলে। তিনি খুলনা জেলার ফুলতলার সুপার জুটমিলের শ্রমিক। নিহতের কাছে তার জাতীয় পরিচয়পত্র ও মিলের পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। নিহতের মাথা ও মুখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, সোমবার রাত ৯টার দিকে খেদাপাড়া ইউনিয়নের মাহমুদকাটি মধ্যপাড়া এলাকার মশিয়ারের দোকান থেকে সিগারেট কেনেন রবিউলসহ দুই-তিন জন। এরপর থেকে তারা আশপাশেই অবস্থান করেন। তারপর রাত ১টার দিকে জুবায়েরের দোকানের শাটার কেটে তারা চুরির চেষ্টা করেন। দোকানের শাটার খোলার শব্দ পেয়ে পাশের বাড়ির বিল্লাল দোকানদারকে খবরদেন।

খবর পেয়ে দোকানদারসহ আব্দুল কুদ্দুস, জুবায়ের, আবদুল মান্নান, মুসা, মতি, বিল্লাল, তাজুসহ অনেকে চারপাশ থেকে ঘিরে ফেলেন। তাদের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে রবিউলকে পিটুনি দেয়। প্রায় দু’ঘণ্টা পেটানোর পর গ্রামবাসী এলাকা ছাড়েন। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে থানায় নেওয়ার পথে রবিউল মারা যান।

মণিরামপুর থানার এসআই  নাসির জানান, লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। লাশের সারা শরীরে আঘাতের চিহ্ন আছে।

থানার ওসি বিপ্লব কুমার নাথ জানান, গণপিটুনির ঘটনায় মামলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.