রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে ১০ টাকা কেজি চাল আত্মসাতের অভিযোগ

02রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী উপজেলার চড় আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নে হতদরিদ্রদের জন্য ১০ টাকা কেজি চাল দুই ডিলারের বিরুদ্ধে আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়রে পানিহার গ্রামের  ১০ টাকা কেজি চালের সুবিধা ভোগী নাজেদুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, আদর আলী, এনামুল, জেকের আলী, আলাউদ্দীনসহ কয়েকজন রোববার গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালিদ হোসেনের নিকট লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ পত্রে তারা বলেন, চড় আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নে খাদ্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের নিয়োগকৃত চাল ডিলার মাইনুদ্দিন ও আবুল কাশেম ১০ টাকা কেজি চাল বিক্রয়ের নিয়ম তোয়াক্কা না করেই তা আত্মসাত করেছে।

চলতি নভেম্বর মাসসহ চাল তিনবার দেওয়ার কথা কিন্তু আমরা প্রথম মাসে পেয়েছি। দ্বিতীয় মাসের চাল আমাদের নিকট বিক্রী না করে দুই ডিলার পুরোটাই আত্মসাত করে নিয়েছে। খাদ্য নিয়ন্ত্রণ  অধিদপ্তরের দেওয়া সুবিধা ভোগী কার্ড আমাদের নিকট না রেখে তারা নিজেরাই রেখে দেয়। কার্ডে উল্লেখিত দ্বিতীয় মাসের বিতরণকৃত ৭ অক্টোবরের তারিখের চাল আমরা পাইনি। কার্ডগুলো তাদের নিকট থাকই নিজেরাই তারিখ বসিয়ে কোন ব্যক্তিকে দিয়ে টিপসই ও স্বাক্ষর করে নিয়েছে।

আমরা চলতি নভেম্বর মাসের চাল বিক্রয় হতে জানতে পেরে দ্বিতীয় মাসের চাল না পাওয়া ও ভূয়া টিপসই স্বাক্ষর নেওয়ার তীব্র প্রতিবাদ জানাই ডিলারেরা আমাদের বলে দ্বিতীয় চালানের চাল আমরাও খাদ্য গুদাম হতে পাইনি এটি উপর মহল নিয়ন্ত্রণ করছে।

অভিযোগে আরো বলেন, সুবিধাভোগীদের প্রায় ৩৫ ভাগ লোককে চাল দেওয়া হয় না। নানান অজুহাতে তারা নিজেরাই ভোগ করছে। অভিযোগ কারিরা বলেন দলের নাম ভাঙ্গিয়ে আ”লীগের নেতারা শেখ হাসিনার ভালো উদ্যোগের মান ক্ষুর্ণ করছে। তারা এসব দুর্ণিতিবাজ চাল ডিলার ও নেতাদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান।

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ দেওয়ার বিষয়টি ওই অফিসের সহকারি মোহাম্মদ ইমদান হোসেন নিশ্চত করে বলেন, ইউএনও স্যার মিটিং ও রাজশাহী গেছেন আসলেই অভিযোগ পত্রটি উপস্থাপন করা হবে।

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আলাওল কবির বলেন, অভিযোগ দেওয়ার বিষয়টি আমি জানিনা । ইউএনও স্যার আমাকে যে নির্দেশ দিবেন তা আমি সততার সাথে দায়িত্ব পালন করব বলে জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.