গোপালগঞ্জে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ঐতিহ্যবাহী ষাঁড়ের লড়াই (ভিডিও)

06গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী ষাঁড়ের লড়াই। গোপালগঞ্জসহ পার্শ্ববর্তী জেলার হাজার হাজার দর্শক উপভোগ করেন ঐতিহ্যবাহী এ ষাঁড়ের লড়াই। শনিবার বেলা ১২ টায় শুরু হয়ে এ লড়াই চলে সন্ধ্যা পর্যন্ত।

এক সময় গোপালগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে ঐহিত্যবাহী ষাঁড়ের লড়াই হতো। কিন্তু, পরবর্তীতে মাঠ স্বল্পতার কারণসহ নানা প্রতিকুলতায় বিলুপ্ত হতে থাকে এই খেলা (লড়াই)। প্রায় হারিয়ে যেতে বসেছে গ্রাম-বাংলার প্রাচীন এই ঐতিহ্যবাহী ষাঁড়ের লড়াই।হারিয়ে যাওয়া সাংস্কৃতি ধরে রাখতে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার লতিফপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে ঘোষেরচর মাঠে ষাঁড়ের লড়াই আয়োজন হয়ে আসছে বেশ কয়েক বছর ধরে। প্রতি বছর এ সময়টাতে ঘোষেরচর গ্রামে

ষাড়ের লড়াইযের আয়োজন করা হয়। আশ পাশ এলাকার লোকজন অপেক্ষা করতে থাকে এদিনটির জন্য।এ লড়াইয়ে গোপালগঞ্জ, বাগেরহাট, নড়াইলসহ পার্শ্ববর্তী জেলার ৩০টি ষাঁড় অংশ নেয়। হরিয়ে যাওয়া এ ষাড়ের লড়াই দেখতে পেরে খুশি দর্শকরা।

ঐতিহ্যবাহী এ ষাঁড়ের লড়াই দেখতে ভীড় করে নারী-পুরুষ, শিশুসহ হাজার হাজার দর্শক। শুধু গোপালগঞ্জ নয় পার্শ্ববর্তী মাদারীপুর, নড়াইল, পিরোজপুরসহ বিভিন্ন জেলার নানা শ্রেণি-পেশার বিপুলসংখ্যক দর্শক ষাড়ের লড়াই উপভোগ করেন।

হারিয়ে যেতে বসা এই ষাড়ের লড়াই যাতে এ অঞ্চলে টিকে থাকে তার ব্যবস্থা করা হবে বলে জানালেন অনুষ্ঠানের আয়োজক ও ষাড়ের লড়াই দেখতে আসা অতিথিরা। নক আউট পদ্ধতিতে ২৫ জোড়া ষাড় অংশগ্রহন করে। পরে বিজয়ীদের হাতে পুরুস্কার তুলে দেয় মোঃ জালাল উদ্দিন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, ফকরুল বসার, চেয়ারম্যান, লতিফপুর ইউ,পি সহ গন্যমান্য বেক্তিবর্গ।

আগামীতেও ষাঁড়ের লড়াই আয়োজন করে আনন্দ দেবার ব্যবস্থা করা হবে এমনটি প্রত্যাশা ষাড়ের লড়াই দেখতে আসা দর্শকদের।

https://youtu.be/tdT3UvyZGmI

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.