জলঢাকায়-আরও একটি ব্রীজ ভেঙ্গে ট্রাক খাদে,লাখো মানুষের যোযাযোগ বিচ্ছিন্ন

 2016-11-19-02-12-22নীলফামারী থেকে মহিনুল ইসলাম সুজন : নীলফামারীর জলঢাকায় উপজেলায় মাল বোঝাই ট্রাক উঠে ভেঙ্গে গেছে একটি ব্রীজ আর সৃষ্টি হয়েছে চরম জনভোগান্তী।গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার মীরগঞ্জ-শিমুলবাড়ী ছাগলদানী ব্রীজটির উপরে ট্রাক উঠলে ব্রীজের তলা ভেঙ্গে ট্রাকটি উল্টে পড়ে।
পরে শুক্রবার স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় ট্রাকটি তোলা হলেও জনভোগান্তী কমাতে এ পর্যন্তও কোনো পদক্ষেপ গ্রহন করেননি সংশ্লিষ্টরা।তবে এমনটা রাতে হওয়ায় ভাগ্যক্রমে এ ঘটনায় হতাহতের কোন ঘটনা ঘটেনি।
ব্রীজটি ভেঙ্গে যাওয়ায় উপজেলার মীরগঞ্জ, শিমুলবাড়ী, ধর্মপাল ও গোলনা ইউনিয়নের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়ে এই ৪টি ইউনিয়নের প্রায় লাখো জনসাধারণ পড়েছেন চরম ভোগান্তীতে।
এলাকাবাসীর অভিযোগ, দীর্ঘদিন থেকে ব্রীজের স্লাব(তলা) ভেঙ্গে গেলেও সংশ্লিষ্টগনেরা কোনো ধরনের পদক্ষেপ গ্রহন ও মেরামত না করায় এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।
শুক্রবার বিকেলে সরেজমিনে ওই এলাকা গিয়ে জানা গেছে, দীর্ঘদিন থেকে ব্রীজটির তলা ভাঙ্গা অবস্থায় থাকায় পাশ্ববর্তী ইউনিয়ন গুলোর ভারী যান চলাচল বন্ধ থাকলে ব্রীজটি একেবারে চলাচলের অনুপযোগী বলে একাধিকবার বিষয়টি উপজেলা প্রকৌশলী অফিসে অবগত করা হলেও টনক নড়েনি তাহার!
এদিকে উপজেলা প্রকৌশলী অফিস সুত্রে জানা গেছে, অনেক আগেই ব্রীজটির নির্মানের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হলেও কোনো বরাদ্ধ পাওয়া যায়নি।
জলঢাকা উপজেলার জলঢাকা-ডোমার (আরএইচডবিউ) চৌপথী-টেংগনমারী হাট চেইনেজ-৬৪৫০ মিটার এ-২০মিটার দীর্ঘ আরসিসি ব্রীজটি পানি উন্নয়ন বোর্ড ১৯৮৪ সালে নির্মান করে। ব্রীজটির উপর দিয়ে পাশ্ববর্তী  উপজেলা হইতে হেভী লোডেড বিভিন্ন যানবাহন চলাচলের কারনে এবং ব্রীজটি দীর্ঘদিনের পুরানো হওয়ায় গত বছর বন্যায় ব্রীজটির স্লাব ভেঙ্গে গিয়ে ব্রীজের মুল অংশ ফাটল দেখা দেয়। শিমুলবাড়ী ইউনিয়নের একাধিক এলাকাবাসী জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে ব্রীজটির উপর দিয়ে মালবাহী ট্রাক পারাপারের চেষ্টা করলে ব্রীজটির সম্পুর্ন স্লাব ভেঙ্গে ট্রাকটিও খাদে পরে যায়। ধর্মপাল ইউপি চেয়ারম্যান জামিনুর রহমান জানান, দীর্ঘদিন থেকে একই ভাবে উপজেলার মীরগঞ্জহাট জিসি হইতে তিনবট ভায়া স্বপন বাজার, খেরকাটি, বাজার রাস্তায় ১৪২৫ মিটার চেইনেজে ১৭ মিটারের আরসিসির স্লাব(তলা) ভেঙ্গে গিয়ে ভারী যান চলাচল বন্ধ হয়ে রয়েছে। অচিরেই মেরামত করা না হলে যে কোনো মুহুর্তই ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ।
জলঢাকা উপজেলা প্রকৌশলী হারুনুর রশিদ জানান, আগামী ৩০ নভেম্বর ১ কোটি ১৭ ল ৮১ হাজার ৫ শত ৩৮ টাকা ব্যয়ে জলঢাকা-ডোমার (আরএইচডবিউ) চৌপথী-টেংগনমারী হাট চেইনেজ-৬৪৫০ মিটার এ ২০ মি. দীর্ঘ আরসিসি  ব্রীজটির দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে।এবং উপজেলার মীরগঞ্জহাট জিসি হইতে তিনবট ভায়া স্বপন বাজার, খেরকাটি ব্রীজ নির্মানের তাগাদা দিয়ে উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে।কিন্তু বরাদ্ধ না পেলে আমাদের কি করার আছে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.