গোবিন্দগঞ্জে পুলিশ-তীরন্দাজ যুদ্ধের ঘটনায় সাড়ে ৩শ’ জনের বিরুদ্ধে মামলা

arif-1গাইবান্ধা থেকে আরিফ উদ্দিন:  গোবিন্দগঞ্জের মহিমাগঞ্জের রংপুর চিনিকলের সাহেবগঞ্জ ইক্ষু খামার আখ মৌসুমে বীজ আখ কাটতে গিয়ে পুলিশ শ্রমিক ও দখলদারের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় শ্যামল হেমব্রম নামে একজন নিহত হয়। এঘটনায় আরো ২জন নিখোজ রয়েছেন। এদিকে রোববার রাতে সাড়ে ৩শ’ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে ৩৮ জনের নাম উল্লেখ করা হলেও বাকীদের নাম উল্লেখ করা হয়নি।

arif-2pএদিকে সোমবার সরেজমিনে সাহেবগঞ্জ ইক্ষু খামার এলাকায় পরিদর্শনে গিয়ে দেখা যায়, ওই এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। দখলদাররা সব উচ্ছেদ অভিযানের শুরুতেই পালিয়ে গেছে। ওই এলাকায় বাড়ি-ঘরের কোন চিহ্ন নেই। তবে কোথাও কোথাও অস্থায়ী টিনের সেড ঘর নির্মাণের চিহ্নসহ পোড়া ছাই পরিলক্ষিত হয়েছে।

তবে ওই এলাকায় বসবাসকারি সাঁওতালরা অভিযোগ করেছেন উচ্ছেদ অভিযান চলার পর স্থানীয় লোকজন তাদের অস্থায়ী ঘরগুলো টিন, বাঁশ এমনকি গরু-ছাগল লুটপাট করে নিয়ে গেছে। তবে সোমবার সকাল থেকেই লুটপাটসহ পরবর্তী সংঘর্ষ এড়াতে সাপমারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে স্থানীয় লোকজন এখন ওই এলাকা পাহারা দিচ্ছে। সেইসাথে ওই এলাকায় পরবর্তী গোলযোগ এবং লুটপাট এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশও মোতায়েন করা হয়েছে।

উলে¬খ্য, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাপমারা ইউনিয়নের রংপুর চিনিকলের সাহেবগঞ্জ ইক্ষু খামারের রোববারের সংঘর্ষ ও উচ্ছেদ অভিযানে সাঁওতালদের বেপরোয়াভাবে ছোড়া তীরের আঘাতে এবং পুলিশের ছোড়া গুলিতে ৮ পুলিশসহ দখলকারি সাঁওতাল ও উচ্ছেদ অভিযানে অংশ নেয়া মিল শ্রমিক কর্মচারীদের মধ্যে ২৫ জন আহত হয়।

arif-3আহতদের মধ্যে দিজেন টুটু (দিনাজপুর), চরণ সরেন (বদরগগঞ্জ), বিমল কিশকু (ঘোড়াঘাট), শ্যামল হেমব্রন (চাপাইনবাবগঞ্জ) কে পার্শ্ববর্তী ঘোড়াঘাট এলাকা দিয়ে দিনাজপুর মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় চাপাইনবাবগঞ্জের জনৈক সাঁওতাল শ্যামল হেমব্রম পথিমধ্যে মারা যায় বলে স্থানীয় সাঁওতালদের সুত্রে দাবি করা হয়।

এব্যাপারে আদিবাসি পরিষদের সভাপতি রবীন্দ্র সরেন সাংবাদিকদের কাছে এই মৃত্যুর সত্যতা স্বীকার করেন। তবে স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারাও এমন খবর শুনেছেন বলে জানান।

গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ সুব্রত কুমার জানান, রোববার রংপুর চিনিকলের শ্রমিক ও পুলিশদের সাথে নিয়ে বাগদা ফার্ম এলাকায় যান। সেখানে তারা চিনিকলের রোপনকৃত আখ কাটতে গেলে স্থানীয় কিছু লোকজন ও দখলদারদের বাধার মুখে পড়ে।

চিনিকলের সরকারী জমির দখলদারদের মধ্যে ছিল অধিকাংশই সাঁওতাল। এব্যাপারে রোববার রাতে এসআই কল্যান চক্রবর্তী বাদী হয়ে ৩৮ জনের নাম উলে¬খ করে এবং অঞ্জাতনামা আরও ৩শ’ জনের বিরুদ্ধে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.