মাদকের সাথে সংশ্লিষ্ট কোন সদস্য পুলিশে থাকবে না বললেন রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি


মঈন উদ্দীন: মাদকের সাথে সংশ্লিষ্ট বা মাদক ব্যবসায়ীর সাথে সখ্যতাকারি কোন পুলিশ সদস্য বাংলাদেশ পুলিশে থাকবেনা বলে মন্তব্য করেছেন রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি আব্দুল বাতেন বিপিএম পিপিএম।

মঙ্গলবার যোগদানের পর রাজশাহী রেঞ্জ ডিআইজির সম্মেলন কক্ষে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এ কথা জানান তিনি।


তিনি আরো বলেন, কোন পুলিশ সদস্য যদি মাদক গ্রহণ করে বা মাদকে সাথে কোনভাবে সংশ্লিষ্ট থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। পুলিশে থাকার অধিকার তার নেই। পুলিশ সদস্য কোন অন্যায় করে ছাড় পাবে না। পুলিশের দ্বারা যাতে ন্যায় বিচার হয় সেই ব্যাবস্থা করা হবে। সেবা প্রত্যাশীদের সর্বোচ্চ সেবা দেয়া হবে। সংশ্লিষ্ট ইউনিট যদি ব্যবস্থা না নেয় তাহলে রেঞ্জ ডিআইজি কে জানালে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সুষ্ঠু পুলিশিং ব্যবস্থা করতে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা করা হবে।
সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন গণমাধ্যমকর্মীরা সমাজের দর্পণ। গণমাধ্যম এর মাধ্যমে আমরা সকল খবর জানতে পারি। এজন্য সবাইকে সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন করতে হবে। তথ্য দিয়ে তাকে সহযোগিতার আহ্বান জানান তিনি। শুরুতেই ডিআইজি গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে পরিচিত হন। পুলিশ-সাংবাদিক পারস্পারিক পেশাদারিত্ব ঠিক থাকবে এমন প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন তিনি।
মতবিনিময় সভায় রাজশাহী রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি এটিএম মোজাহিদুল ইসলাম, রাজশাহী রেঞ্জ ডিআইজি কার্যালয়ের পুলিশ সুপার, রাজশাহী জেলা পুলিশ সুপার মোঃ শহিদুল্লাহ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতে খায়ের আলম সহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

রাবি উপচার্যসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে
সাবেক ভিসির স্ত্রীর মামলা
মঈন উদ্দীন: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক আব্দুস সোবহানহর ছয়জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন সাবেক ভিসি অধ্যাপক মু. মিজানউদ্দীনের স্ত্রী মোমেনা জীনাত। মামলায় নিয়ম বর্হিভূতভাবে পেনশন আটকে রাখার অভিযোগ আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাদি পক্ষের আইনজীবী নুরে কামরুজ্জামান ইরান।
তিনি জানান, মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী যুগ্ম জেলা জজ আদালত-১ এর আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং ৬/২০২০ (টাকা)। আদালতের বিচারক জয়ন্তী রাণী মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ১৯ অক্টোবর আসামীদের আদালতে হাজির হতে সমন জারী করা হয়েছে। মামলার অপর পাঁচ আসামীর মধ্যে রয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের দুইজন রেজিস্টার, কোষাধক্ষ এবং রাবির শেখ রাসেল স্কুলের বর্তমান সভাপতি ও অধ্যক্ষ। আইনজীবী জানান, মামলার বাদী মোমেনা জীনাত রাবি শেখ রাসেল স্কুলের অধ্যক্ষ ছিলেন। অবসর গ্রহনের পর নিয়ম বর্হিভূতভাবে তার পেনশনের ৪৫ লাখ ৬১ হাজার ৯৪৫ টাকা আটকে রাখা হয়েছে বলে মামলায় তিনি অভিযোগ করেছেন।

রাজশাহী বিভাগে নতুন
রোগী ৭০, সুস্থ ২১০
মঈন উদ্দীন: রাজশাহী বিভাগে নতুন ৭০ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। সোমবার ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় তারা শনাক্ত হন। এ দিন বিভাগের ২১০ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন। মঙ্গলবার রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. গোপেন্দ্রনাথ আচার্য্য এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, মঙ্গলবার বিভাগে নতুন করে কারও মৃত্যু হয়নি। এ পর্যন্ত বিভাগে ২৮৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ ১৭৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বগুড়ায়। এছাড়া রাজশাহীতে ৪২ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৪ জন, নওগাঁয় ১৮ জন, নাটোরে নয়জন, জয়পুরহাটে সাতজন, সিরাজগঞ্জে ১৩ জন এবং পাবনায় ৯ জন মারা গেছেন।
সোমবার শনাক্ত হওয়া ৭০ জনের মধ্যে ৩৫ জনের বাড়ি বগুড়া। এছাড়া রাজশাহীতে ১২ জন, জয়পুরহাটে একজন, সিরাজগঞ্জে ১৯ জন এবং পাবনায় তিনজন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছেন।
বিভাগে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ হাজার ৭৬ জন। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ৭ হাজার ২৩০ জন শনাক্ত হয়েছেন বগুড়ায়। এছাড়া রাজশাহীতে ৪ হাজার ৭৭৭ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৭৪৭ জন, নওগাঁয় এক হাজার ২৩৮ জন, নাটোরে ৯৩১ জন, জয়পুরহাটে এক হাজার ৪১ জন, সিরাজগঞ্জে ২ হাজার ৪৭ জন এবং পাবনায় এক হাজার ৬৫ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.