রাজবাড়ীতে মসজিদের ঈদুল আযাহার নামাজ পড়া প্রতিহত করার ঘোষনা দেয়ায় ইউপি মেম্বারকে উত্তম-মাধ্যম

এম,মনিরুজ্জামান,রাজবাড়ী প্রতিনিধি।
রাজবাড়ী সদরের শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নের বড়নুর পুর জামে
মসজিদে ঈদুল আযাহার নামাজ পড়া
প্রতিহত করার ঘোষনা দেয়ায় ওই ইউপি’র ৯নং ওয়ার্ডের সাবেক
মেম্বার ইলিয়াছ মোল্লা মিঠুকে উত্তেজিত মুসল্লিরা উত্তম-
মাধ্যম দিয়ে এলাকায় অবাঞ্চিত করেছে। এ নিয়ে বড়নুর পুর
এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।
শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ তোরাব আলী এবং ওই
এলাকার ইউপি সদস্য মোঃ আজিজুল হক জানান,শুক্রবার বড়নুর
জামে মসজিদে জুম্মা নামাজ শেষে ইমামের আহবানে মুসল্লিরা
শনিবারের ঈদুল আযাহার নামাজের জামাত সকাল সাড়ে আট টায়
নির্ধারন করেন।কিন্তু এ সময় সাবেক মেম্বর ইলিয়াছ মোল্লা
মিঠু বিনা কারনে মসজিদের অন্যান্য মুসল্লিদের সর্ম্পকে
আপত্তিকর কথা বলে ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত করে এবং
মসজিদে ঈদের নামাজ পড়াকে প্রতিহত করার ঘোষনা দেন।কোন
অবস্থাতেই আগামীকাল মসজিদে ঈদের নামাজ হতে দিবে না বলে
প্রকাশ্যে মসজিদে দাড়িয়ে ঘোষনা দেন।
তার এ কথা প্রত্যাহার করার জন্য মুসল্লিরা অনুরোধ করলে সে
আরো উত্তেজিত হয়ে সকলকে মসজিদ থেকে বের হয়ে যেতে

নির্দেশ দেন। এতে উত্তেজিত মুসল্লিরা এসময় মিঠুকে ধরে
উত্তম-মাধ্যম দিয়ে মসজিদ থেকে বের করে দেন। করোনা কালে
সরকারের ঘোষনাকে অমান্য করে মসজিদে ঈদের নামাজ পরাকে
প্রতিহত করার ঘোষনা প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত মিঠুকে বড়নুরপুর
মসজিদের ও এলাকায় অবাঞ্চিত ঘোষনা করেন এলাকার জন সাধারন ও
মুসল্লিগন। বড়নুর পুর মসজিদ কমিটির সভাপতি মোঃ
মোজাফ্ধসঢ়;ফর হোসেন ও সেক্রেটারী সফরুজ্জামান
এ ঘটনার সত্যতা শিকার করে বলেন ,মিঠু মেম্বার মসজিদের মান ও
এলাকার কারো সম্মান করে কথা বলে না। বরং ভাল কোন কথা হলেই
সে তার বিরুদ্বে যেয়ে এলাকায় ফেতনা ফেসাদ সৃষ্টি করে থাকে।
বড়নুর পুর মসজিদের একজন নিয়মিত মুসল্লি রাজবাড়ী জেলা
আইনজীবি সমিতির সদস্য বিশিষ্ট আইনজীবি এডভোকেট এম
এ মাজেদ ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে তিনি এ রকম ঘোষনা
সরকারের করোনাকালিন আইনের অমান্যকর এবং এ ঘোষানা
শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে জানান। এ ছাড়া শহীদ ওহাবপুর ইউপি
মেম্বার আজিজুল হক জানান,ইলিয়াছ মোল্লা বড়নুর পুর ও কোলার
হাট এলাকায় মাদক ব্যাবসায়ী হিসেবে পরিচিত ও বিভিন্ন
সস্ত্রাসী কাজের ইন্দনকারী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.