রাজশাহী বিভাগের রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ তদন্ত অফিসার বুলবুল ইসলাম

আব্দুল ওয়াদুদ, শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ
বগুড়ার শেরপুর থানায় কর্মরত অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম রাজশাহী বিভাগের রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ তদন্ত অফিসার নির্বাচিত হয়েছেন। বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আলোচিত মামলার রহস্য উদঘাটন এবং আসামী গ্রেফতার করায় বুলবুল ইসলামকে রাজশাহী বিভাগের রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে। গত ২৬ মে রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজির কনফারেন্স রুমে তার হাতে ক্রেষ্ট, নগদ অর্থ এবং সনদ তুলে দেন রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি হাফিজ আক্তার।
এসময় উপস্থিত ছিলেন এডিশনাল ডিআইজি নিশারুল আরিফ সহ রাজশাহী রেঞ্জের সকল পুলিশ সুপার।
বুলবুল ইসলাম নীলফামারীর ডোমার উপজেলার বামুনীয়া গ্রামে এক মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহন করেন।
২০০৫ সালে এস, আই, পদে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন। ২০১৬ সালে প্রমশন পেয়ে পুলিশ পরিদর্শক হিসেবে শেরপুর থানায় যোগদান করেন।
বগুড়ার শেরপুরের বিভিন্ন গরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদঘাটন করেন। সম্প্রতি এ বছরে শেরপুরের ভবানীপুর বাজার এলাকায় অটোরিকশায় করে পুলিশের একটি দল টহল দিচ্ছিল। এ সময় চরমপন্থীদের ২০-২৫ জন সদস্য বাজারে পোস্টার লাগাচ্ছিল। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে চরমপন্থীরা গুলি ছোড়ে। সর্বহারা পার্টির গুলিতে এ এস আই নান্নু মিয়া (৩৮) গুলিবিদ্ধ হয়। পরে একটি মামলা দায়ের হলে মূল আসামীদেরকে গ্রেফতার করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করেন। আলোচিত এ মামলার আসামীদের গ্রেফতার করায় তিনি রাজশাহী রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) কর্মকর্তা হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে।
বগুড়ার শেরপুরে বিদ্যুতপৃষ্টে ১ জনের মৃত্যু
শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ
বগুড়ার শেরপুরে বথুয়াবাড়ী গ্রামে নিজের জমিতে সেচ দিতে গিয়ে বিদ্যুতের ছেড়া তারে জরিয়ে বিদ্যুতপৃষ্ঠ হয়ে ৩১ মে শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে নজরুল ফকির (৩৫) নামের এক ছ’মিল শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।
জানা যায়, উপজেলার খানপুর ইউনিয়নের বথুয়াবাড়ী গ্রামের মৃত ছাবের ফকিরের ছেলে ছ’মিল শ্রমিক নজরুল ফকির ৩১ মে শুক্রবার সকাল ৮ টার দিকে বথুয়াবাড়ী বাজার এলাকার পেট্রোলপাম্পের দক্ষিন পার্শে নিজের জমিতে পানির সেচ দিতে যায়। গত পরশু দিনে ঝড়ে শেরপুর-ধুনটের বিদ্যুত সঞ্চালনের তার ডয়ড়ে পরে থাকতে দেখে। সেই তারে নজরুল ফকির জরিয়ে গিয়ে গুরুতর আহত হয়। জমিতে কাজ করা অন্য শ্রমিকরা তাকে উদ্ধার করে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.