বাংলাদেশি দুই টাকা দিয়ে ভারতীয়রা কী করে?

04এশিয়ানবার্তা: যশোরের বেনাপোল বন্দরে এই মাসেই দুই দফায় দুই টাকার নোটের বড় চালানসহ দুজন ভারতীয় নাগরিককে আটক করে বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি।

মাসের শুরুর দিকে উদ্ধার করা হয় ২৬ হাজার ২ টাকার নোট । যার মোট অর্থমূল্য ৫২ হাজার টাকা।

এরপর এক সপ্তাহের ব্যবধানে আবার জব্দ করা হয় দুই টাকার নোটের আরো বড় চালান, যার মোট মূল্য ৮২ হাজার টাকার বেশি।

এ ঘটনায় দুইজন ভারতীয় নাগরিককে আটক করা হয়।

নতুন দুই টাকার নোটের একদিকে শহীদ মিনারের ছবি । অন্যপাশে বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিবর রহমানের মুখাবয়ব। আর পুরনো নোটের একদিকে দোয়েল পাখির ছবি রয়েছে।

মাদকসেবীদের অনেকের কাছে নেশাদ্রব্য গ্রহণের জন্য নতুন দুই নোট খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে বলে জানা যাচ্ছে।

ফলে সীমান্তের চোরাইপথ এবং আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে পাচারের চেষ্টা দেখা যাচ্ছে বারবার। ভারতের বাজারে এই দুই টাকাই প্রতিটি ৫ রূপি পর্যন্ত মূল্যে বিক্রি করা হয়ে থাকে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বেনাপোল বন্দর থানার ওসি অপূর্ব হাসান বলেছেন, “এগুলো ইন্ডিয়ায় নিয়ে যাচ্ছিল। সেখানে এসব সেখানে হেরোইন বা ইয়াবা সেবনের জন্য ব্যবহার করা হতে পারে”।

এসব নোটের মাধ্যমে পাইপ তৈরি করে হেরোইন ও ইয়াবা গ্রহণ করে মাদকাসক্তরা। সিগারেটের প্যাকেটের ভিতরে থাকা রাংতাও একাজে ব্যবহার করা হয়। তবে এখন অনেকের কাছেই আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে বাংলাদেশের নতুন দুই টাকার নতুন নোট ।

তিন মাস আগে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিপুল পরিমাণে দুই টাকার নোট চীনে পাচারের চেষ্টার সময় জব্দ করা হয়েছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.