1. aknannu1964@gmail.com : AK Nannu : AK Nannu
  2. admin@asianbarta24.com : arifulweb :
  3. angelhome191@gmail.com : Mahbubul Mannan : Mahbubul Mannan
  4. info@asianbarta24.com : Dev Team : Dev Team
রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:১৯ পূর্বাহ্ন

হানাদারমুক্ত দিবসে গাইবান্ধায় মুক্তিযুদ্ধের স্মারক প্রদর্শনী

  • আপডেট করা হয়েছে : বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৩৩ বার দেখা হয়েছে

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:
হানাদারমুক্ত দিবস উপলক্ষে গাইবান্ধায় মুক্তিযুদ্ধের স্মারক প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী জেলা সংসদের আয়োজনে দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীটি অনুষ্ঠিত হয় গাইবান্ধা শহিদ মিনার চত্বরে। সকাল সাড়ে ১১টায় শহিদ পরিবারের সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে এ প্রদর্শনীর
উদ্বোধন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাহিত্যিক অধ্যাপক মাজহার-উল-মান্নান, কবি সরোজ দেব, সংগীতজ্ঞ মশিউর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহমুদুল হক শাহজাদা, গৌতম চন্দ্র মোদক, গণ উন্নয়ন কেন্দ্রের নির্বাহী প্রধান এম.আবদুস সালাম, পরিবেশ আন্দোলনের আহŸায়ক ওয়াজিউর রহমান রাফেল, তবলাশিল্পী প্রমতোষ সাহা, উদীচী জেলা সভাপতি অধ্যাপক জহুরুল কাইয়ুম প্রমুখ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রকৃত ইতিহাস উন্মোচন
এবং মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি রক্ষায় স্মরণীয় অবদানের জন্য কুড়িগ্রামের উত্তরবঙ্গ
জাদুঘরের প্রতিষ্ঠাতা, একুশে পদকপ্রাপ্ত এ্যাডভোকেট এস.এম আব্রাহাম
লিংকনকে উদীচী গাইবান্ধা ও গণ উন্নয়ন কেন্দ্র সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করে। এসময় শাহ্ধসঢ়; আব্দুল হামিদ স্টেডিয়াম সংলগ্ন গাইবান্ধা বধ্যভূমির মাটি উত্তরবঙ্গ জাদুঘরে সংরক্ষণের জন্য আব্রাহাম লিংকনের হাতে তুলে দেয়া হয়। প্রদর্শনীতে গাইবান্ধা, রংপুর, কুড়িগ্রামসহ উত্তরবঙ্গের মুক্তিযুদ্ধকালীন বিভিন্ন প্রেক্ষাপটের দুই শতাধিক ছবি ও স্মারক প্রদর্শিত হয়।

দিনব্যাপী প্রদর্শনীতে গাইবান্ধার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সুশান্ত কুমার
মাহাতো, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারী, শিক্ষা
প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, সাংবাদিক, বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক,
পেশাজীবী সংগঠন, নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি ও রাজনৈতিক দলের
নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন স্তরের মানুষ দর্শনার্থী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
সন্ধ্যা ৬টায় শহিদ মিনার চত্বরে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ ও সাংস্কৃতিক
অনুষ্ঠান ‘ মুক্তির বারতা পেয়েছি সেইদিন’ আয়োজন করে উদীচী গাইবান্ধা।
অন্যদিকে, ৭ ডিসেম্বর বুধবার গাইবান্ধা হানাদার মুক্ত দিবস উদযাপন উপলক্ষে স্থানীয় স্বাধীনতা প্রাঙ্গণে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এরআগে পুরাতন টেলিফোন ভবন সংলগ্ন পূর্বপাড়া থেকে জেলা প্রশাসক মো. অলিউর রহমানের নেতৃত্বে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। দিবসটি উপলক্ষে প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গীবাদ নিপাত যাক, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা প্রতিষ্ঠা কর করতে হবে’। গাইবান্ধা হানাদার মুক্ত দিবস উদযাপন কমিটির উদ্যোগে ও জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় দিবসটি পালন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা বেগম
গিনি এমপি। হানাদার মুক্ত দিবস উদযাপন কমিটির সমন্বয়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহমুদুল হক শাহজাদার সভাপতিত্বে ও জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারি কমিশনার জান্নাতুল ফেরদৌস উর্মির সঞ্চালনায় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সুশান্ত কুমার মাহাতো, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইবনে মিজান, বীর মুক্তিযোদ্ধা ওয়াশিকার মো. ইকবাল মাজু, আলী আকবর প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের এই দিন সকালবেলা কোম্পানী কমান্ডার মাহবুব এলাহী রঞ্জু (বীর প্রতীক) এর নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধাদের একটি দল ফুলছড়ি উপজেলার ফজলুপুর ইউনিয়নের কালাসোনার চর থেকে বালাসীঘাট হয়ে গাইবান্ধা শহরে প্রবেশ করে। বিজয়ী বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আগমনের সংবাদ পেয়ে আগের রাতেই গাইবান্ধা শহরের স্টেডিয়ামে অবস্থিত পাক হানাদার বাহিনীর সদস্যরা তল্পিতল্পা গুটিয়ে রংপুর ক্যান্টনমেন্টের উদ্দেশ্যে পালিয়ে যায়।

বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন

এরকম আরও বার্তা
স্বত্ব © ২০১৫-২০২২ এশিয়ান বার্তা  

কারিগরি সহযোগিতায় Pigeon Soft