1. aknannu1964@gmail.com : AK Nannu : AK Nannu
  2. admin@asianbarta24.com : arifulweb :
  3. angelhome191@gmail.com : Mahbubul Mannan : Mahbubul Mannan
  4. info@asianbarta24.com : Dev Team : Dev Team
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:২৯ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
পলাশবাড়ীতে প্রতিবন্ধী সেবা সংস্থা’র ৮ম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে ক্রীড়া-আলোচনা-শীতবস্ত্র বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আমাকে ‘স্যার’ ডাকতে হবে বিধায় জিততে দেয়া হয়নি: হিরো আলম বসুন্ধরা গ্রুপের টিভিসিতে অভিনয় করলেন অভিনেত্রী সুমাইয়া জামান রাজশাহী মহানগীতে চোর সন্দেহে দুই শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যা, আটক ৪ সিরাজগঞ্জে গরু চুরিতে বাঁধা দেয়ায় গৃহকর্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে ৪জন আটক চট্টগ্রামের আনোয়ারায় ভূমি দস্যুদের চিত্র বার ও ব্রেঞ্চের সমন্বয় ন্যায় বিচার নিশ্চিত করে: নাটোরে আইনমন্ত্রী(ভিডিও)  মহেশখালীতে আগ্নেয়াস্ত্রসহ ৩ জলদস্যু আটক : উদ্ধার ১৬ জেলে নড়াইলে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ জাল দলিল ও নকল সরঞ্জাম জব্দ ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নওগাঁ জেলা সম্মেলন ২০২৩ অনুষ্ঠিত

ফুলবাড়ীতে গৃহবধূর ১ লাখ ৬৩ হাজার টাকা খোয়া। কথিত জ্বীনের বাদশা গ্রেপ্তার

  • আপডেট করা হয়েছে : রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ১৪ বার দেখা হয়েছে
মেহেদী হাসান,ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:
দিনাজপুুরের ফুলবাড়ীতে প্রযুক্তি ব্যাবহারের মাধ্যমে আলমগীর কবির (৩৮) নামের কথিত এক জ্বীনের বাদশাকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। গত শনিবার (৩ ডিসেম্বর) রাত ৯টার দিকে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কালীতলা বাজার এলাকা থেকে আলমগীর কবিরকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত কথিত জ্বীনের বাদশা আলমগীর কবির গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বিরাহীম গ্রামের আবুল ইসলামের ছেলে।
থানায় দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ৮ নভেম্বর রাত আনুমানিক ১০টার দিকে ০১৭০৫ ৯১৬৫৪৩ নম্বর মোবাইল থেকে ফুলবাড়ী উপজেলার বেতদীঘি ইউনিয়নের নন্দীগ্রামের বাসিন্দা মোস্তফা কামালের স্ত্রী আমেনা বেগমের ব্যবহৃত ০১৩২৪ ০০৯৭১৯ নম্বরের মোবাইল ফোনে কল আসে। কিন্তু ফোনটি আমেনা বেগমের স্বামী মোস্তফা কামাল ধরেন। এ সময় তাকে নামাজ ও কোরআন শরীপ পড়াসহ নানা ধরনের ধর্মীয় কথাবার্তার এক পর্যায়ে মসজিদে একটি জায়নামাজ দেওয়ার জন্য বলা হয়। এ কথা শুণে ভয়ে আমেনা বেগম ওইদিন সকাল ৮ টা ২০ মিনিটে পার্শ্ববর্তী রুহুল ০১৭৮৮ ২২৮৪৯৪ নম্বরের ফোন থেকে ০১৭০৫ ৯১৬৫৪৩ নম্বরের মোবাইল ফোনে ৫৫০ টাকা বিকাশ করে পাঠিয়ে দেন।
এরপর থেকে পরিবারের স্বামী ও সন্তানদের মৃত্যুসহ বিভিন্নভাবে ক্ষয়ক্ষতির ভয়ভীতি দেখিয়ে চলতি বছরের ৯ নভেম্বর  থেকে ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন বিকাশ নম্বরের মাধ্যমে এক লাখ ৬৩ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে কথিত ওই জ্বীনের বাদশা। পুণরায় ১৪ নভেম্বর স্বর্ণের গহনা বিক্রি করে ১৪ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে পাঠিয়ে দেন আমেনা বেগম। বিষয়টি আমেনা বেগমের ভাই একরামুল হক জানতে পেরে তাকে নিয়ে থানার অফিসার ইনচার্জের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন। এ বিষয়ে প্রথমে ১৫ নভেম্বর জিডি এবং পরে ২০ নভেম্বর অভিযোগ এবং সর্বশেষ ২২ নভেম্বর তারিখে প্রতারণার শিকার আমেনা বেগম বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ১২।
মামলার সূত্র ধরে মামলা তদন্তকারি কর্মকর্তা এসআই জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে এসআই আরিফসহ একদল পুলিশ গত শনিবার (৩ ডিসেম্বর) রাত ৯টার দিকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কালীতলা বাজার এলাকা থেকে কথিত জ্বীনের বাদশা আলমগীর কবিরকে গ্রেপ্তার করেছেন।
প্রতারনার শিকার আমেনা বেগম বলেন, ফোনে অদ্ভুত কন্ঠে ধর্মীয় কথাবার্তা বলে স্বামী ও সন্তানদের মৃত্যুর ভয়ভীতি দেখানো হতো। স্বামী ও সন্তানের জীবনের কথা ভেবেই পর্যায়ক্রমে এক লাখ ৬৩ হাজার টাকা দিয়ে ফেলেছি। সর্বশেষ নিজের গহনাটুকুও বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছিলাম। টাকা নেওয়ার পর থেকে ফোন ধরা বন্ধ করে দেয় প্রতারক।
মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) জিয়াউর রহমান জিয়া বলেন, মামলাটি রেকর্ডের পর থেকে কথিত জ্বীনের বাদশাকে গ্রেপ্তারের জন্য চেষ্টা শুরু করা হয়। সর্বশেষ তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কালীতলা বাজার এলাকা থেকে কথিত জ্বীনের বাদশা আলমগীরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আশ্রাফুল ইসলাম বলেন, আমেনা বেগমকে তার স্বামী ও সন্তানের মৃত্যুর ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রতারকচক্র এক লাখ ৬৩ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। প্রতারক আলমগীরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর সঙ্গে অন্য আরো কেউ জড়িত আছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। একই সঙ্গে খোয়া যাওয়া টাকাও উদ্ধারের জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে।

বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন

এরকম আরও বার্তা
স্বত্ব © ২০১৫-২০২২ এশিয়ান বার্তা  

কারিগরি সহযোগিতায় Pigeon Soft