1. aknannu1964@gmail.com : AK Nannu : AK Nannu
  2. admin@asianbarta24.com : arifulweb :
  3. angelhome191@gmail.com : Mahbubul Mannan : Mahbubul Mannan
  4. info@asianbarta24.com : Dev Team : Dev Team
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :

উল্লাপাড়ায় চাঁদা না পেয়ে ভবন নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেওয়ার প্রতিবাদে  সংবাদ সম্মেলন

  • আপডেট করা হয়েছে : শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২২
  • ১২১ বার দেখা হয়েছে
এম.দুলাল উদ্দিন আহমেদ,জেলা সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:
সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় চাঁদা না পেয়ে বহুতল ভবন নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেওয়ার প্রতিবাদে ভবন মালিক মীর আব্দুল মান্নান সংবাদ সম্মেলন করেছেন।
 বৃহস্পতিবার ২৫( নভেম্বর) বিকেলে সিরাজগঞ্জস্থ দৈনিক কলম সৈনিক পত্রিকা অফিসের মিডিয়া হল রুমে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে ভবন মালিক মীর মোঃ আব্দুল মান্নান লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।এসময় তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন,আমি মীর ট্রাভেলস এর স্বত্ত্বাধিকারী হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে সুনামের সাথে ট্রাভেলস এর ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি এবং আমার সুনামখ্যাত ট্রাভেলস এর মাধ্যমে
প্রায় তিন হাজারেরও অধিক হাজীদের হজ্বব্রত পালন করিয়েছি। আমি একজন ব্যবসায়ী ও বাংলাদেশ হজ্জ এজেন্সী এসেসিয়েশন (হাব) এর সদস্য। ট্রাভেলস ব্যবসার বিগত ১২ বছরে সৌদি সরকার আমাকে তিনবার সম্মাননা সনদ প্রদান করেছেন। এতে সৌদি সরকারের কাছে বাংলাদেশ সরকারের ভাবমূর্তি বৃদ্ধি পেয়েছে। এমনকি আমি দীর্ঘদিন ধরে,চশমা ডিলারশীপ,সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে সুনামের সাথে ঠিকাদারী করে সমাজে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছি। বর্তমানে একটি হজ্ব এজেন্সীসহ আমার ও আমার ছেলে মীর মোন্নাফ বাবু’র পৃথক দু’টি এজেন্ট ব্যাংকিং শাখা উল্লাপাড়াতে রয়েছে। এছাড়াও আমার ছেলে বর্তমানে ঠিকাদারী ব্যবসার সাথেও জড়িত রয়েছে। ব্যবসায়ী কর্মকান্ডের মাধ্যমে আমার সফলতা ও আমার পরিবারের উন্নতি দেখে (১) মোঃ আব্দুল হাকিম, (২) মোঃ রফিকুল ইসলাম সর্ব পিতা-মোঃ কোরবান আলী,(৩) শের মোহাম্মাদ সেরু,পিতা-নকিমুদ্দিন, (৪) রেকাত হোসেন ওরফে রকেট,পিতা-মোঃ রফিকুল ইসলাম (৫) মোঃ বাপ্পা,(৬) মোঃ আজিম ও (৭) মোঃ আশিক সর্বপিতা-মোঃ আব্দুল হাকিম নামে কতিপয় সন্ত্রাসী,চাঁদাবাজ ব্যক্তি আমার ও আমার পরিবারের বিরুদ্ধে হীন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। সে ধারাবাহিকতায় তারা গণমাধ্যমকর্মীদের আমার সম্পর্কে ভূল বুঝিয়ে নানা রকম মিথ্যা তথ্য দিয়ে স্থানীয় সংবাদপত্র সমূহে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করিয়ে আমার ব্যবসায়ী জীবনের অর্জিত সুনাম ও মর্যাদা বিনষ্ট করার মাধ্যমে আমাকে সামাজিকভাবে হেয় পতিপন্ন করার অপ্রচেষ্টা করছে। শুধু এতেই তারা ক্ষ্যান্ত নয় উপরোন্ত তারা আমার কাছে দশ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে। কিন্তু তাদের চাঁদার টাকা না পেয়ে তারা একের পর এক ভুয়া কাগজপত্র,সার্টিফিকেট (কেস নং ৫০৯/১৯৬৫-৬৬) ও ভুয়া ভয়নামা তৈরি করে জমি সংক্রান্ত মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। শুধু তাই নয়,
আমি তাদের দাবীকৃত চাঁদা না দেওয়ায় তারা আমাকে ও আমার পরিবারের সদস্যদেরকে গুম ও হত্যার হুমকি দিয়েছে। এতে আমি আমার ও আমার পরিবারের সদস্যদের জীবনের নিরাপত্তার স্বার্থে আদালতে ১০৭ ধারা মামলা করলে তারা আদালতের কাছে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেয়েছে। এরপরও তারা গত ১৮ জানুয়ারি ২২ আবারও গুম ও হত্যার হুমকি দেয় এবং আমাকে ও আমার ছেলেকে মারপিট করে। আমাদেরকে আমার ক্রয়কৃত বাড়ি হতে বের করে দিয়ে বাড়িঘর ভাংচুর করে প্রায় ২০ লাখ
টাকার ক্ষতিসাধন করে এবং বাড়িটিতে তালা ঝুলিয়ে দেয়। এ ঘটনায় আমি দ্রুত বিচার আইনে মামলা করি। ওই মামলাটি তদন্ত শেষে উল্লাপাড়া থানার পরিদর্শক আসামিদের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল করেন। এ মামলার ১নং আসামি মোঃ আব্দুল হাকিম বেশ কিছুদিন জেলহাজতে ছিলেন। জেল থেকে জামিনে মুক্ত হয়ে আসার পরে আব্দুল হাকিম আমার উপর আরও ক্ষিপ্ত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় উল্লাপাড়া পৌরসভার প্ল্যান অনুমোদনক্রমে কুঠিবাজার আমার নিজস্ব কেনা জমিতে নির্মাণাধীন ৬তলা ভবনে ৪ তলার ছাদে কর্মরত শ্রমিকদেরকে মারপিট করে বের করে দেয় আব্দুল হাকিম ও রফিক গং। তারা আবারও চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দেয়ায় আমার ঢালাইয়ের বালু-সিমেন্ট নষ্ট করে। এ ঘটনায় গত ১৫ নভেম্বর ২০২২ তাদের বিরুদ্ধে উল্লাপাড়া থানায় আরো একটি সাধারণ ডায়েরী করি। চাঁদাবাজরা নির্মাণরত শ্রমিকদেরকে মারপিট করে বের করে নির্মান কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। এর আগে দ্রুত বিচার আইনের দায়ের করা মামলাটি তুলে নিতে ওই সন্ত্রাসীরা আমাদেরকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।
উল্লেখ্য যে,সরকারি জমি দখল ও জাল দলিল তৈরী করে এবং অন্যের জায়গা-জমি ভুয়া দলিলের মাধ্যমে নিজের নামে করে নেয়া সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ রফিক-হাকিম বাহিনীর অন্যতম পেশা। সেই নেশায় আসক্ত হয়ে তারা আমার নিজের ক্রয় করা ৩ শতক জমি দখলে নিতে নানাভাবে ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। এই চক্রটি আমাকে সামাজিকভাবে হেয় করতে,আমার ব্যবসায়িক ও সামাজিক সুনাম নষ্ট করার লক্ষ্যে আমাকে রাজাকার-জামাত শিবির আখ্যা দিয়ে যাচ্ছে। যাহা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং বানোয়াট। কেননা আমি সুনামের সহিত আমার ট্রাভেলস এর ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি। আমি নিজের ব্যবসা-বানিজ্য নিয়ে ব্যস্ত থাকি,কখনো কোন রাজনীতির সাথে জড়িত নেই এবং অতীতেও ছিলাম না।
আমি অত্যন্ত দু:খের সাথে জানাচ্ছি যে, আব্দুল হাকিম ও রফিকগং চক্রটি আমার বিরুদ্ধে ষড়ন্ত্রের অংশ হিসেবে সাংবাদিকদের মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য দিয়ে গত ২৫ নভেম্বর বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় সংবাদ করিয়েছে। এতে আমার সামাজিক ও ব্যবসায়িক মর্যাদা চরমভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। আমি অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসকল সংবাদের তীব্র প্রতিবাদসহ উপরোক্ত ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে সঠিক ও বস্তনিষ্ট সংবাদ প্রকাশ করার অনুরোধ জানাচ্ছি। সেই সাথে আমাকে নিয়ে যে হীন ষড়যন্ত্র চলছে তাহা সুষ্ঠভাবে তদন্ত করে স্ব-স্ব মিডিয়ায় তুলে ধরার জন্য জাতির বিবেক সাংবাদিক ভাইদের নিকট বিনীত অনুরোধ করছি।

বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন

এরকম আরও বার্তা
স্বত্ব © ২০১৫-২০২২ এশিয়ান বার্তা  

কারিগরি সহযোগিতায় Pigeon Soft