1. aknannu1964@gmail.com : AK Nannu : AK Nannu
  2. admin@asianbarta24.com : arifulweb :
  3. angelhome191@gmail.com : Mahbubul Mannan : Mahbubul Mannan
  4. info@asianbarta24.com : Dev Team : Dev Team
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:২১ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
কক্সবাজারে কাভার্ডভ্যান চাপায় ব্যবসায়ী নিহত গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা  ফলোআপ নিউজ:….সিরাজগঞ্জে ১৩ দিনে ১১ থানায় আ’লীগের মামলার জালে বিএনপির ১৬৭৪ নেতাকর্মী : গ্রেপ্তার-৭ মির্জাপুরে অবৈধ ৯ টি ইটভাটাকে ১ কোটি ১৮ লাখ টাকা জরিমানা ১ ডিসেম্বর ‘মুক্তিযোদ্ধা দিবস’ রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দিন : বাংলাদেশ ন্যাপ  ফুলবাড়ীতে স্কাউটস ভবন নির্মান কাজের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন পুলিশি বাধাঁয় ১৫ কিলোমিটার রাস্তা হেঁটে নেতা-কর্মী পৌছালেন সমাবেশস্থলে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের প্রতি আস্থাহীনতাই খালাসী নিয়োগ পরীক্ষায় ব্যাপক অনুপস্থিতির কারণ ১০ দফা দাবিতে রাজশাহী বিভাগে পরিবহন ধর্মঘট শুরু

রাজশাহীর হাট-বাজারে দেখা মিলছে শীতকালীন সবজি, চড়া দাম

  • আপডেট করা হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর, ২০২২
  • ৩২ বার দেখা হয়েছে

মঈন উদ্দীন, রাজশাহী: রাজশাহীল হাট-বাজারে শীতের বাহারি সব সবজি উঠতে শুরু করেছে। রাজশাহীর কাঁচা বাজারে মিলছে আগাম শীতকালীন নানা ধরনের সবজি। তবে সবজিগুলো বিক্রি হচ্ছে বেশ চড়া দামে। রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন বাজারের খুচরা বিক্রেতাদের অভিযোগ পাইকারি বাজারেই দাম চড়া। তাই বাধ্য হয়েই ক্রেতাদের কাছে বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে তাদের। জেলার নওহাটা সবজির হাট ও মোহনপুর উপজেলার বিদিরপুর পাইকারি সবজির বাজারে ঘুরে দেখা গেছে, আগাম শীতকালীন সকল প্রকার সবজির দাম চড়া। পাইকারি ব্যবসায়ীরা বলছেন, আমদানি কম থাকায় সবজির দাম দিন দিন বৃদ্ধি হচ্ছে।

রাজশাহীর সাহেব বাজারসহ বিভিন্ন কাঁচা বাজার ঘুরে দেখা যায়, ৪০ টাকা কেজির কম দরে বাজারে মিলছে না কোনো সবজি। আর উর্ধ্বমুখী দামের কারণে অসন্তোষ সাধারণ ক্রেতারা। বিক্রেতারা বলছেন, বাজারে নতুন সবজি এলে শুরুর দিকে দাম একটু বেশি থাকে। এছাড়াও বিভিন্ন সবজির আমদানি কম থাকার কারণেও দাম একটু বেশি। তবে কিছুদিন পর এসকল সবজির দাম সাধারণ ক্রেতার নাগালে চলে আসবে।

রাজশাহীর পবার বাগধানীএলাকার সবজি ব্যবসায়ীরা জানান, কেজি প্রতি টমেটো ১৪০ থেকে ১৬০ টাকা, ফুলকপি ৭০ টাকা, বাঁধাকপি ৫০ টাকা, গাজর ১৬০ টাকা, বরবটি ৫০ থেকে ৬০ টাকা, কাঁচা মরিচ ৬০ থেকে ৭০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এদিকে আলু ২৫ টাকা, শসা ৭০ থেকে ৮০ টাকা, সিম ১০০ থেকে ১২০ টাকা, মূলা ৪০ টাকা, বেগুন ৬০ টাকা, করলা ৬০ টাকা, ঢেঁড়স ৪০ টাকা, কাঁচা পেঁপে ৩০ টাকা, চিচিঙ্গা ৫০ টাকা, ঝিংগা ৬০ টাকা, কাঁকরোল ৬০টাকা, পটল ৪০ টাকা, লাউ প্রতি পিচ ৪০ টাকা দরে বিক্রি হতে দেখা গেছে। এছাড়াও বাজারে দেখা মিলছে লাল, হলুদ, সবুজ রঙের ক্যাপসিকামের।

যা বিক্রি হচ্ছে ২৫০ থেকে ৩০০ টাকা কেজিতে।
বাজার ঘুরে আরও জানা গেছে, আদা বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১০০ টাকা, দেশি পেঁয়াজ ৪০ থেকে ৫০ টাকা, রসুন ৯০ থেকে ১০০ টাকা করে কেজি। অন্যদিকে বেড়েছে ডিমের দামও। সাদা ডিমের হালি ৪৪ টাকা ও লাল ডিম ৪৬ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে। অপরদিকে কেজিতে ১০ টাকা কমেছে বয়লার মুরগির দাম। বিক্রি হচ্ছে ১৭০ টাকা কেজি দরে। এছাড়াও সোনালী মুরগী ২৯০ থেকে ৩০০ টাকা, লেয়ার মুরগি ২৫০ থেকে ২৬০ টাকা, দেশি মুরগি ৪১০ থেকে ৪২০ টাকা ও হাঁস বিক্রি হচ্ছে ৪২০ টাকা কেজি হিসেবে।

বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন

এরকম আরও বার্তা
স্বত্ব © ২০১৫-২০২২ এশিয়ান বার্তা  

কারিগরি সহযোগিতায় Pigeon Soft